Homeওয়েবসাইটকিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায় - সেরা ১০ টি উপায় ২০২১

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায় – সেরা ১০ টি উপায় ২০২১

আপনি কি জানতে চান কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানাতে হয়? ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করা কোন কঠিন কাজ নয়। 2021 সালে আপনি চাইলেই ঘরে বসে নিজে নিজেই ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনার কোনো প্রকার কোডিং শিখতে হবে না। তো আজকের আর্টিকালে কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায় এটি নিয়ে আলোচনা করবো।

সেসাথে বিনা খরচে ওয়েবসাইট বানানোর ১০ টি প্লাটফর্মের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো এবং এইগুলো দিয়ে বিনামূল্যে সাইট বানানোর উপায় ব্যাখ্যা করবো।

ফ্রি ওয়েবসাইট কি?

ওয়েবসাইট হলো ওয়েব সার্ভারে রাখা ওয়েব পৃষ্ঠা, ছবি, অডিও, ভিডিও ও অন্যান্য ডিজিটাল তথ্যের সমষ্টি। আর এটি যদি ফ্রি ডোমেইন-হোস্টিং ব্যবহার করে তৈরি করা হয় তাহলে তাকে ফ্রি ওয়েবসাইট বলে।

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট কাজ করে

আপনারা হয়তো জেনে থাকবেন একটি ওয়েবসাইট বানাতে হলে ২ টি জিনিস অবশ্যই লাগে। আর তা হলো ডোমেইন এবং হোস্টিং

ডোমেইন কি? ডোমেইন কত প্রকার

হোস্টিং কি? ওয়েব হোস্টিং কত প্রকার এবং কি কি

ওয়েবসাইট তৈরি করতে কি কি লাগে

ওয়েবসাইট বানাতে হলে একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনে নিতে হয়।

কিন্তু ইন্টারনেটে কিছু ওয়েবসাইট বা কম্পানি রয়েছে যারা হোস্টিং এবং সাব-ডোমেইন ফ্রিতে দিয়ে থাকে। আপনি তাদের ফ্রি হোস্টিং এবং সাব-ডোমেইন ব্যবহার করে একদম বিনা খরচে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

এক্ষেত্রে মনে রাখবেন, ফ্রি ওয়েবসাইট টাকা খরচ করে ওয়েবসাইট বানানোর মতো এতটা প্রোফেশনাল হবে না।

তবে প্রোফেশনাল না হলেও তো আপনি একটি ওয়েবসাইট পেয়ে যাচ্ছেন, তাই নয় কি?

তাই চলুন আগে জেনে নিই ফ্রি ওয়েবসাইট বানানোর সেরা ১০ টি প্লাটফর্ম সম্পর্কে-

কিভাবে ফ্রিতে ওয়েবসাইট বানানো যায়

ফ্রি ওয়েবসাইট (free Website) বানানোর বা তৈরি করার অনেকগুলো প্লাটফর্ম আছে। আমি আজকে ১০ টি সেরা প্লাটফর্মের সাথে আপনাকে আলাপ করিয়ে দেব।

যেগুলোর যেকোনো একটি ব্যবহার করে আপনি বিনামূল্যে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

তবে আগেই বলে রাখি, এদের মধ্যে সবচেয়ে সেরা প্লাটফর্ম হচ্ছে Blogger.com

এছাড়াও অনেক উপায়েই বিনা খরচে ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

নিচে ধাপে ধাপে প্রত্যেকটা প্লাটফর্ম বা Website Builder সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

ফ্রি বা বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করার সেরা প্লাটফর্মগুলো হলো:

  1. Blogger
  2. WordPress.com
  3. Wix
  4. Google Sites
  5. Website.com
  6. Weebly
  7. Webnode
  8. site123
  9. simple site
  10. website builder

1. Blogger দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Blogger দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ কিভাবে Blogger দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়

ব্লগার ডট কম (Blogger.com) বা ব্লগার দিয়ে খুব সহজেই ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়।

কেন আপনি ব্লগার দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানাবেন? কারন ব্লগার গুগলেরই একটি free website builder সার্ভিস।

এটি ব্যবহার করে খুব সহজেই বিনামূল্যে একটি ওয়েবসাইট বানানো যায় এবং সেই ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করা যায়। তাছাড়া Google Blogger দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে কোনো প্রকার কোডিং নলেজ কিংবা ওয়েব ডিজাইন জানতে হয় না।

আর যেহেতু এটি গুগলেরই একটি সার্ভিস তাই নিরাপত্তা নিয়ে আপনারা একে ভরসা করতে পারেন।

ব্লগার দিয়ে আপনি আপনার কম্পানি ওয়েবসাইট, ব্যাক্তিগত ওয়েবসাইট, এমনকি অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

তাছাড়া ব্লগার দিয়ে ব্লগ ওয়েবসাইট বানিয়ে ব্লগিং করে গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

নানা প্রকার Web template, Theme, এবং Layout ব্যবহার করে professional এবং সুন্দর একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

তবে মনে রাখবেন এখানে আপনি ফ্রিতে একটি হোস্টিং পেয়ে যাচ্ছেন ঠিকই কিন্তু ফ্রিতে .com ডোমেইন পাবেন না

ফ্রিতে সাব-ডোমেইন পাবেন।

উদাহরনঃ techbdtricks.blogspot.com

আপনি চাইলে .com ডোমেইন কিনে ব্লগার ফ্রি ওয়েবসাইটের সাথে যুক্ত করে নিতে পারবেন। এতে কোনো সমস্যা হবে না।

কিংবা আপনি চাইলে পরবর্তীতে আপনার ব্লগার ফ্রি ওয়েবসাইটকে আবার ওয়ার্ডপ্রেসে শিফট করতে পারবেন। এতেও কোনো সমস্যা নাই।

কিন্তু যেহেতু এখানে ফ্রি হোস্টিং ব্যবহার করবেন, তাই ওয়েবসাইটে ভালো স্পিড পাবেন না, এবং এসইও করে র‍্যাংক করাতে সমস্যা হবে। তাছাড়া, এডসেন্স থেকে উপার্জন কিছুটা কম হবে।

কেননা, আপনি গুগলের ফ্রি হোস্টিং ব্যবহার করার কারনে গুগল ব্লগার আপনার উপার্জন থেকে কিছুটা কেটে রেখে দিবে।

2. wordpress.com দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

wordpress.com দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ কিভাবে wordpress.com দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়

অনেকে wordpress.com এর সাথে wordpress.org কে একসাথে গুলিয়ে ফেলে। এই ২ টি আলাদা আলাদা ওয়েবসাইট।

অবশ্যই পড়ুনঃ

wordpress.com ব্যবহার করে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো গেলেও wordpress.org দিয়ে ফ্রিতে ওয়েবসাইট বানানো যায় না। wordpress.org দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে গেলে প্রথমে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনে নিতে হয়।

কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস ডট কম দিয়ে ফ্রি সাইট বানালে আপনাকে এক টাকাও খরচ করতে হবে না

তবে এখানে একটা অসুবিধা হলো আপনি wordpress.com দিয়ে ফ্রিতে ওয়েবসাইট বানিয়ে ব্লগিং করে টাকা কামাতে পারবেন না।

তাছাড়া এখানেও কোনো প্রকার উচ্চমানের ডোমেইন (Top Level Domain) পাবেন না।

ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানালে আপনাকে একটি সাবডোমেইন ব্যবহার করতে হবে।

উদাহরনঃ techbdtricks.wordpress.com

তাছাড়া, ওয়ার্ডপ্রেস এর মধ্যে আপনার ইচ্ছামতো যেকোনো ফ্রি থিম ব্যবহার করতে পারবেন। এবং যেকোনো ধরনের ডিজাইন আপনার ইচ্ছামতো করতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরির সবচেয়ে বড় সুবিধাটি হলো এর নিরাপত্তা।

বর্তমানের ৪০% এরও বেশি ওয়েবসাইট এই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে তৈরি করা হয়। এর একটি মাত্র কারন তা হলো এটি দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করা সহজ এবং নিরাপদ।

আর সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস এর কাজ শিখে অনলাইন থেকে আয় করার অনেক উপায় আছে।

তাই, আপনার কাছে যদি টাকা না থাকে তাহলে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানিয়ে ওয়ার্ডপ্রেসের কাজ শিখতে পারেন। এর এই দক্ষতা দিয়ে অনলাইনে ফ্রিলান্সিং ও করতে পারবেন।

3. Wix দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Wix দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ Wix দিয়ে ফ্রি প্রোফেশনাল ওয়েবসাইট তৈরি করুন

আপনি যদি একজন ফ্রিলান্সার হোন এবং আপনার নিজের পোর্টফোলিও এর জন্য খুব উন্নতমানের ওয়েবসাইট বানাতে চান। তাও আবার ফ্রিতে।

তাহলে Wix.com হতে পারে আপনার জন্য উপযুক্ত প্লাটফর্ম।

সত্যি কথা বলতে, Wix দিয়ে সত্যিই খুব ভালো ডিজাইনের ওয়েবসাইট বানানো যায়।

যা দেখতে খুবই প্রোফেশনাল মনে হয়।

তবে বরাবরের মতো এখানেও আপনি কোনো উচ্চমানের ডোমেইন পাবেন না। বরং একটি সাব ডোমেইন পাবেন।

উদাহরনঃ techbdtricks.wixsite.com

কিন্তু ডিজাইনের দিক দিয়ে wix সবার থেকে এগিয়ে থাকবে।

এখানে অনেক ফ্রি থিম রয়েছে যেগুলো দেখতে খুবই মনমুগ্ধকর। তাছাড়া এখানকার যে থিমগুলো এবং থিমের ফিচারগুলো আপনি ফ্রিতে পাচ্ছেন সেগুলো ওয়ার্ডপ্রেসে টাকা দিয়ে কিনেও পাবেন না।

প্রকৃতপক্ষে, wix ডিজাইনের জন্য খুবই ভালো এবং এটি দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায়।

4. Google Sites দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Google Sites দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ Google Sites দিয়ে এসইও ফ্রেন্ডলি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Google Sites দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানাতে হলে প্রথমেই বলতে হয় যে এটি হলো গুগলেরই একটি Free Website Builder.

শুরুর দিকে Google Sites দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইটের প্রোফেশনাল ডিজাইন করা না গেলেও ২০২১ সালে এটি ব্যবহার করে আপনার প্রয়োজনমতো একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

কিন্তু মনে রাখবেন, প্রোফেশনাল ডিজাইন মানেই কিন্তু প্রোফেশনাল ওয়েবসাইট না।

আপনি খুব সুন্দর করে একটি ডিজাইন করতে পারবেন ঠিকই কিন্তু ওয়েবসাইটের বাহ্যিক সুযোগ-সুবিধাগুলো ভোগ করতে পারবেন না। বিভিন্ন ফিচার যুক্ত করতে পারবেন না।

তাহলে প্রশ্ন আসতে পারে, কেন আমি Google Sites দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করবো?

সহজভাবে আমি আপনাকে বুঝিয়ে বলছি। মন দিয়ে পড়ুন-

আমরা যারা ব্লগিং করি কিংবা ব্লগিং করতে চাই তাদের জন্য এসইও (SEO) খুবই গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয়। এই এসইও এর সাথে একটি শব্দ জড়িত আছে আর সেটি হলো ব্যাকলিংক (Backlinks).

একটি ওয়েবসাইট কিংবা ব্লগের জন্য ভাল ব্যাকলিংক খুবই গুরুত্বপূর্ন। ভাল ব্যাকলিংক বলতে বুঝায়, ভালোমানের ওয়েবসাইট থেকে লিংক পাওয়াকে।

আর আপনি Google Sites দিয়ে ফ্রিতে ওয়েবসাইট বানিয়ে সেখান থেকে আপনার প্রধান ওয়েবসাইটকে ব্যাকলিংক দিতে পারবেন।

এতে করে আপনার মেইন ওয়েবসাইট গুগলে র‍্যাংক করবে এবং আপনি অনেক অনেক ভিজিটর পাবেন। এবং আপনার ওয়েবসাইটের এসইও স্কোর বৃদ্ধি পাবে।

এসইও কেনো শিখবো? SEO এর গুরুত্ব

সে জন্য আপনাকে https://sites.google.com/new এই ঠিকানায় যেতে হবে এবং সেখান থেকে Blank, Portfolio, Event, Help Center অথবা Project যেকোনো একটাতে ক্লিক করে ফ্রিতে একটি সাধারন ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারেন।

কিন্তু উল্লেখ্য যে, এখানে আপনি কোনো ডোমেইন বা সাব-ডোমেইন পাবেন না। বরং আপনি গুগলেরই একটি সাব-ডোমেইনের suffix URL ব্যবহার করতে পারবেন।

উদাহরনঃ sites.google.com/view/techbdtricks

Google Sites এর DA (Domain Authority) হচ্ছে 97.

তাহলে আপনি Google Sites দিয়ে ওয়েবসাইট বানিয়ে DA 97 থেকে free Do follow backlink নিতে পারছেন।

5. Website.com দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Website.com দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ Website.com দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার উপায়

প্রোফেশনাল ডিজাইন ওয়েবসাইটের জন্য Website.com খুবই কার্যকারী একটি ফ্রি ওয়েবসাইট বিল্ডার।

Website.com এর পরিষ্কার ডিজাইনের template গুলো খুব সহজেই যেকোনো ইন্ড্রাস্টিকে খুব উন্নতমানের ওয়েবসাইট বানাতে সহায়তা করে।

Website.com দিয়ে আপনি যেকোনো জিনিস Drag and drop করে ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন এবং সেখানে বিভিন্ন এসইও টুলস ব্যবহার করে আপনার ওয়েবাইটকে গুগলের রেজাল্ট পেইজে নিয়ে আসতে পারবেন।

আপনি এটি ব্যবহার করে বিভিন্নরকম ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। যেমনঃ বহুভাষিক সাইট, online store, portfolio Website, small business website, restaurant website ইত্যাদি।

এবং উক্ত ওয়েবসাইটগুলোর আপনি Mobile Responsive ডিজাইন করতে পারবেন।

6. Weebly দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Weebly দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ Weebly দিয়ে বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করার উপায়

ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট তৈরির ক্ষেত্রে Weebly খুব জনপ্রিয় একটি Free Website Builder.

Weebly দিয়ে খুব সহজেই অনলাইন শপিং স্টোর, ব্লগ, পোর্টফোলিও, নিউজপোর্টাল সহ বিভিন্ন ওয়েবসাইট একদম বিনামূল্যে বানানো যায়।

Most Importantly, আপনি যদি একটি অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান, তাহলে Weebly দিয়ে খুব সহজেই এটি করতে পারবেন।

তাছাড়া এখানে অন্যসব ওয়েবসাইট বিল্ডারের মতো ড্রাগ এন্ড ড্রপ (Drag and Drop) করে যেকোনো ওয়েব-পেইজকে নিজের ইচ্ছামতো সাজাতে পারবেন। অর্থাৎ, ওয়েব ডিজাইন করতে পারবেন।

এছাড়াও এখানে অনেক ধরনের ওয়েব টেমপ্লেট আছে যেগুলো ইনপুট করার মাধ্যমে ১ মিনিটের আপনার ওয়েবসাইটের ডিজাইন করা হয়ে যাবে।

অন্যসব ফ্রি ওয়েবসাইট বিল্ডারের মতো weebly তেও আপনি একটি ফ্রি সাব-ডোমেইন পেয়ে যাচ্ছেন।

উদাহরনঃ Techbdtricks.weebly.com

তাছাড়াও এখানে SEO তথা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর জন্য বিভিন্ন ধরনের এসইও টুলস পাওয়া যায়, যা ব্যবহার করে সহজেই আপনার সাইটকে গুগল রেজাল্ট পেইজে দেখাতে সক্ষম হবেন।

7. webnode দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

webnode দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট
চিত্রঃ webnode দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

webnode অনেক জনপ্রিয় একটি ফ্রি ওয়েবসাইট বিল্ডার প্লাটফর্ম। সারা বিশ্বের এর প্রায় ৪০ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে।

Webnode ওয়েব বিল্ডার দিয়ে আপনি যেকোনো ডিজাইনের যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

তবে ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরির জন্য Webnode বেশ উপযোগী এবং জনপ্রিয়ও বটে।

তাছাড়া ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট, ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট, ব্লগ , নিউজপোর্টাল সহ যেকোন ধরনের ওয়েবসাইট ওয়েবনড ব্যবহার করে ফ্রিতে বানানো যায়।

তাদের প্রফেশনাল ডিজাইনের অনেক থিম বা টেমপ্লেট রয়েছে যেগুলো আপনি একদম বিনামূল্যে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন।

আপনি যদি একদম নতুনও হোন, তারপরেও আপনি এটি দিয়ে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। তাছাড়া Drag and Drop করে যেকোনো ধরনের ডিজাইন করতে পারবেন।

8. Site 123 দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Site 123 দিয়ে  ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ Site 123 দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করুন

Site 123 একটি ওয়েবসাইট তৈরির জন্য দুটি প্ল্যান প্রোভাইড করে।তার একটি হলো ফ্রি প্ল্যান এবং আরেকটি পেইড।

ফ্রি প্ল্যান ব্যবহার করে খুব সহজেই বিনামূল্যে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়। কিন্তু সেখানে বেশি স্পেস এবং কাস্টম ডোমেইনের সুবিধা পাওয়া যায় না।

কাস্টম ডোমেইন বলতে বুঝায় প্রধান ডোমেইনকে যার একটি নির্দিষ্ট এক্সটেনশন থাকে। যেমনঃ techbdtricks.com, shakibhasan.com ইত্যাদি।

কিন্তু প্রিমিয়াম প্ল্যানে আপনি ফ্রি প্ল্যানের সবকিছু এবং সাথে এক বছরের জন্য একটি কাস্টম ডোমেইন এবং ১০ জিবি হোস্টিং স্টোরেজ পাবেন।

এখানে জেনে রাখা ভালো Site 123 হলো মূলত ইসরাইলের একটি কম্পানি।

তাই এটি ব্যবহার করবেন কি না এইটা আপনার বিষয়।

9. Simple site দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

 Simple site দিয়ে  ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ Simple site দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

নামটি Simple site হলেও এটি দিয়ে খুব gorgeous website বানানো যায়।

Simple site এর তিনটি প্ল্যান আছে। এর মধ্যে একটি ফ্রি এবং আর ২ টি পেইড।

পেইড প্ল্যানের মধ্যে একটি দাম $13.32/mo এবং আরেকটির দাম 28.32/mo

Simple site ফ্রি প্ল্যানের মধ্যে Free image bank, SimpleSite domain, 5 online store products, Mobile editor পেয়ে যাবেন যা দিয়ে খুব সহজেই মোবাইলের মাধ্যমে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

আর যদি আপনি টাকা দিয়ে পেইড ভার্সন কিনেন তাহলে আরো অনেক বেশি সুবিধা পাবেন যেমন Personal domain, custom email address, Website analytics, এবং Hosting.

10. Website Builder দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

Website Builder  দিয়ে  ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
চিত্রঃ ১ মিনিটে Website Builder দিয়ে পারফেক্ট ওয়েবসাইট তৈরি

Website Builder নামটি শুনেই মনে হচ্ছে এটি দিয়ে হয়তো কোনো ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

হ্যা, অবশ্যই Website Builder দিয়ে একটি ওয়েবসাইট বানানো যায় তাও আবার ফ্রিতে।

বিশেষ করে আপনার যদি কোনো পণ্য থাকে এবং তা যদি কাস্টমারদের কাছে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পৌছে দিতে চান তাহলে Website Builder আপনার জন্য খুব ভালো মাধ্যম।

তাছাড়া, এটি দিয়ে আপনি খুব সহজেই আপনার প্রয়োজনীয় একটি ডিজাইন জেনারেট করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনাকে Website Builder দিয়ে আগে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে এবং আপনার ওয়েবসাইট সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন করা হবে।

আপনি সেই প্রশ্নের উত্তরগুলো লিখার পরে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য যে ডিজাইনটি ভালো হবে সেটি অটোমেটিক জেনারেট হয়ে যাবে।

এটি আমার কাছে খুব ভালো একটি সিস্টেম বলে মনে হয়েছে।

তাছাড়া, এখানে আপনার ইচ্ছামতো আপনি Drag and Drop এর মাধ্যমেও ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

Conclusion

কিভাবে ফ্রি তে একটি ওয়েবসাইট বানানো যায় আশা করি আপনি তা ভালো করে বুঝতে পেরেছেন। উপরের দেখানো ১০ টি নিয়মের যেকোনো একটি ব্যবহার করেই আপনি ফ্রি ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন।

এদের প্রত্যেকটির কিছু না কিছু সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। তবে বাংলাদেশে অধিকাংশ মানুষ ব্লগার দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট বানিয়ে থাকে।

আর যদি কেউ প্রোফেশনালভাবে ওয়েবসাইট বানাতে চায় তাহলে সে WordPress.org কে পছন্দ করে।

তবে আপনার কাছে যদি টাকা না থাকে, তাহলে উপরের ১০ টি নিয়ম আবার ভালো করে পড়ুন এবং যেটি আপনার কাছে ভালো লাগে সেটি দিয়ে একটি বিনামূল্যে ওয়েবসাইট বানিয়ে নিন।

আজ এই পর্যন্তই । ভালো থাকবেন। আর আজকের আর্টিকাল আপনার কাছে কেমন লেগেছে তা জানাতে ভুলবেন না।

Tech BD Trickshttp://techbdtricks.com
তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন খবর সবার আগে পেতে চাইলে Tech BD Tricks এর সাথেই থাকুন। দেশের বেকারত্ব হ্রাস এবং টেকনোলজি বিষয়ক তথ্য মানুষের কাছে সঠিকভাবে পোছে দিতে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
RELATED ARTICLES

2 COMMENTS

  1. খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।ধন্যবাদ আপনাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recenty published

error: Content is protected !!