গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি – Easy method 2022

যারা নতুন নতুন গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল পেয়ে থাকেন তাদের গুগল এডসেন্স সম্পর্কে অভিজ্ঞতা কম থাকায় জ্ঞানও কম থাকে। এজন্য গুগল এডসেন্স থেকে কিভাবে টাকা উত্তোলন করতে হয় সে সম্পর্কে তারা তেমন কিছু জানে না বললেই চলে। অনেক সময় ইউটিউবের বিভিন্ন টিউটোরিয়াল দেখে জানার চেষ্টা করলেও কখনো কখনো তা অসম্পূর্ণই থেকে যায়। তাই আজকে আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি, গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত।

আশা করছি আজকের আর্টিকেল একদম শেষ পর্যন্ত পড়লে গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার সম্পূর্ণ গাইডলাইন পেয়ে যাবেন। গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানার পূর্বে আমরা সংক্ষিপ্ত ধারণা নিব গুগল এডসেন্স সম্পর্কে। তো চলুন জেনে নেই গুগল এডসেন্স আসলে কী?

গুগল এডসেন্স কি এবং কিভাবে কাজ করে? 

গুগল এডসেন্স হলো গুগলের বিজ্ঞাপন প্ল্যাটফর্ম যেটির মাধ্যমে ওয়েবসাইট , অ্যাপস ও ইউটিউব চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করানো হয়। বর্তমানে অনলাইন থেকে ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় ও নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হলো গুগল এডসেন্স।

গুগল এডসেন্স সিপিসি দিয়ে থাকে তাদের পাবলিশারদের ক্লিকের বিনিময়ে। গুগল এডসেন্স বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে থাকে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, ব্যানার এড, নেটিভ এড এবং ভিডিও এড ইত্যাদি। এটি পাবলিশারদের আয়ের একটা নির্দিষ্ট অংশ দিয়ে থাকে। তো আমরা গুগল এডসেন্স সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত ধারণা নিলাম। এবার আমরা গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি সম্পর্কে জানব। এজন্য আপনাকে ধৈর্য ধরে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার শর্ত – Google adsense theke taka tola

গুগল এডসেন্স থেকে টাকা উত্তোলনের আগে আপনাকে একটা কাজ অবশ্যই করে নিতে হবে। সেটি হলো গুগল এডসেন্সের পিন ভেরিফাই করে নেওয়া।

গুগল এডসেন্স এর পিন ভেরিফাই করার জন্য শর্ত রয়েছে। শর্তটি হলো পিন ভেরিফাই করার জন্য আপনার একাউন্টে অবশ্যই ১০$ হতে হবে। আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্টে ১০ ডলার হলে গুগল আপনাকে মেইল দিয়ে জানিয়ে দিবে যে আপনার ঠিকানায় একটা পিন লেটার পাঠানো হয়েছে।

আপনার গুগল এডসেন্স এর নাম ও ঠিকানা সঠিকভাবে দিয়ে থাকলে আপনি বিদেশ থেকে আপনার পোস্ট অফিসে লেটার পাবেন।

সাধারণত গুগল এডসেন্স এর পিন লেটার পেতে সর্বোচ্চ ২৮ দিন সময় লেগে থাকে। তবে সেটা আপনার হাতে পেতে সময়ের কমবেশি হতে পারে।

আরো পড়ুনঃ

গুগল এডসেন্স এর পিন লেটার পাওয়ার জন্য পোস্ট অফিসে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে হবে। পোস্টমাস্টারকে আগে থেকে বলে রাখলে সেটি আসা মাত্র আপনাকে ফোন করে জানাবে। এজন্য পোস্টমাস্টারকে কিছু টাকা বকশিস দেওয়া উচিত।

উল্লেখ্য যে, গুগল এডসেন্স এর ঠিকানা দেওয়ার সময় নিজের ফোন নম্বরটি দিতে ভুলবেন না। ফোন নাম্বার দিলে খুব সহজে আপনি লেটারটি হাতে পাবেন।

গুগল থেকে পাঠানো লেটার এ আপনি একটা গোপন পিন পাবেন সেটা দিয়ে আপনার গুগল এডসেন্স ভেরিফাই করে নিতে হবে।

আপনার যদি নামঠিকানা ভুল হয়ে থাকে তবে লেটার পেতে সমস্যা হবে। তবে আপনি কয়েকবার পিন লেটারের জন্য আবেদন করার সুযোগ পাবেন। তার পরেও পিন লেটার না আসলে, আপনার নাম ও ঠিকানা ঠিক থাকলে জাতীয় পরিচয় পত্র বা ভোটার আইডি কার্ড বা স্মার্ট কার্ড দিয়ে গুগল এডসেন্সের এড্রেস ভেরিফাই করে নিতে পারবেন। 
তো এবার জানি গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি সম্পর্কে।

গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি – Google Adsense to bank bangladesh

গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি


গুগল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার জন্য আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্টে মোট ব্যালেন্সের পরিমাণ ১০০$ বা তার বেশি হতে হবে। গুগল এডসেন্স সাধারণত আপনাকে আপনার ব্যাংক একাউন্টে প্রতি মাসের ২১ তারিখে টাকা পাঠাবে, কিন্তু সেই টাকা পেতে আপনার দেরি হবে।

বিভিন্ন ধরনের ব্যাংক ভিন্ন ভিন্ন সময়ে পেমেন্ট করে থাকে। কিছু কিছু ব্যাংক দেরি করে গুগল অ্যাডসেন্সের টাকা যোগ করে থাকে।
গুগল এডসেন্স থেকে টাকা উত্তোলন করা একদম সহজ। গুগল এডসেন্স এড্রেস ভেরিফাই করার পর আপনাকে শুধু আপনার গুগল অ্যাডসেন্সে একটা ব্যাংক একাউন্ট যোগ করতে হবে। একটা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সঠিকভাবে যোগ করতে পারলে আপনার কাজ শেষ ! এরপর গুগোল প্রতিমাসে অটোমেটিক্যালি ১০০$ বা তার বেশি হলে পাঠিয়ে দিবে।

তবে সে টাকা আপনার ব্যাংক একাউন্ট পেতে একটু সময় লাগবে।

এখন আমরা জানবো গুগল অ্যাডসেন্সের টাকা পাঠানোর প্রক্রিয়া।

গুগল এডসেন্স-এর টাকা পাঠানোর প্রক্রিয়া

গুগল আপনাকে যে প্রক্রিয়ায় টাকা পাঠায় সেটা বোঝার জন্য এই উদাহরণই যথেষ্ট। ধরেন , আপনি কোন একটা সালের জানুয়ারি মাসে ১০০$ বা তার বেশি ইনকাম করেছেন। গুগল আপনাকে এই টাকা চলতি মাসে না দিয়ে পরবর্তী মাস অর্থাৎ ফেব্রুয়ারি মাসের ২১ তারিখে আপনার একাউন্টে সেন্ড করে ইমেইলের মাধ্যমে জানিয়ে দিবে।
এবার আমরা জানবো কিভাবে গুগল এডসেন্সে ব্যাংক একাউন্ট যোগ করতে হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত। 

গুগল এডসেন্সে পেমেন্ট মেথড যোগ করার পদ্ধতি

গুগল এডসেন্স-এ পেমেন্ট মেথড এড করার জন্য গুগল এডসেন্স এর সাথে আপনার ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করতে হবে।

এ জন্য আপনাকে প্রথমে আপনার গুগল এডসেন্সের ড্যাশবোর্ডে প্রবেশ করতে হবে।

দ্বিতীয়ত, আপনাকে থ্রি ডট মেনু থেকে “Payments” অপশনে ক্লিক করতে হবে।

Google Adsense Payment section

“Payments” অপশনে ক্লিক করার পরে নিচের চিত্রের মত করে “Payment Info” আসবে।

Manage Payment methods গুগল এডসেন্স


আপনার অ্যাকাউন্টের Threshold অতিক্রম করলে অর্থাৎ, ১০০ ডলার পূর্ণ হলে নীল অংশ সম্পূর্ন ভরাট হয়ে যাবে। তখন আপনি আপনার ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি পেমেন্ট নিতে পারবেন।

তৃতীয়ত, আপনি নিচের চিত্রের মত Manage Payment Method অপশন পাবেন সেখানে ক্লিক করুন। তারপর Add Payment Method এ ক্লিক করুন।

এডসেন্স থেকে টাকা তুলুন add payment methode


এবার আপনি Add New Wire Transfer Details অপশনে ক্লিক করুন।

Wire transfer এর মাধ্যমে এডসেন্স থেকে ব্যাংকে টাকা নিয়ে আসুন

এরপর আপনার নিকট একটা ফরম পূরণের মত একটা অংশ আসবে। সেখানে আপনি প্রথম অংশটি “beneficiary id (optional) adsense” পূরণ করবেন না। এরপর দ্বিতীয় অংশ যেখানে Name on bank account এ আপনাকে ব্যাংক অনুযায়ী নামটি পরিপূর্ণ ভাবে লিখতে হবে।

গুগল এডসেন্স এ আপনার ব্যাংক তথ্য দিন

আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের যেরকম নামের বানান ব্যবহার করেছেন ঠিক হুবহু সেই রকম ভাবে লিখতে হবে। এরপর Bank Name অংশে আপনাকে আপনার ব্যাংকের নাম দিতে হবে। সম্পূর্ণ ব্যাংকের নাম লিখতে হবে। Swift BIC অংশে আপনাকে ব্যাংকের সুইফট কোড বসাতে হবে। এটা আপনার ব্রাঞ্চের নাম লিখে গুগলে ঘাটাঘাটি করলে পেয়ে যাবেন। এছাড়া আপনি যে শাখায় একাউন্ট করেছেন তার ম্যানেজারকে ফোন দিয়ে জেনে নিতে পারবেন।
এরপর আপনাকে Account Number অংশে আপনার সেভিংস ব্যাংক একাউন্টের নাম্বার লিখতে হবে। নিচে আপনাকে সেই নাম্বার পুনরায় আবার লিখতে হবে। Retype account number অংশে। এরপর আপনাকে set as a primary payment method অপশনে ঠিক তুলে দিয়ে Save করে নিতে হবে সব তথ্য। এরপর থেকে গুগল স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার একাউন্টে ১০০ ডলার হলে টাকা পাঠিয়ে দিবে।

গুগল এডসেন্স পেমেন্ট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথা

উল্লেখ্য যে, আপনার প্রতি মাসের আয় পরবর্তী মাসের প্রথম তারিখে মূল এডসেন্স একাউন্ট ব্যালেন্স এ যোগ করা হয়। কখনো কখনো সেটা পরবর্তী মাসের দ্বিতীয় দিনে যোগ করা হয়ে থাকে। 

প্রতি মাসের শেষের দিকে গুগল কর্তৃপক্ষ আপনার উপার্জিত ব্যালেন্স পর্যবেক্ষণ করে দেখে। যদি আপনার উপার্জনের মধ্যে কোন ইনভ্যালিড ক্লিক থাকে তবে সেটা গুগল কর্তৃপক্ষ কর্তন করে বাকি অংশ আপনাকে প্রদান করবে। 

গুগল প্রতি মাসের ২১ তারিখে আপনার ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাঠাবে। তবে ব্যাংক ভেদে আপনার টাকা পেতে কম-বেশি সময় লাগতে পারে।

আমাদের কথা 

আশা করছি আজকে আর্টিকেল এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি আপনার ভালো লেগেছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে আপনাকে পরামর্শ দিব ব্যাংক একাউন্ট হিসেবে ইসলামী ব্যাংক ও সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক ব্যবহার করার। কারণ অনেকে ডাচ-বাংলা ব্যাংক ব্যবহার করে থাকেন, ডাচ-বাংলা ব্যাংক ব্যবহার করার ফলে তাদের বিভিন্ন ঝামেলায় পড়তে হয়। কারণ ডাচ বাংলা ব্যাংকের কর্মীরা সাধারণত গ্রাহকবান্ধব নয়। পুরো আর্টিকেল মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

আমার লেখা আরো আর্টিকাল পড়ুনঃ

Leave a Reply

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: