Homeগুগল এডসেন্সইউটিউব থেকে টাকা তোলার উপায় ২০২১

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার উপায় ২০২১

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার উপায় খুবই সহজ। ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে সেখান থেকে অর্জিত টাকা আপনি সরাসরি আনতে পারবেন আপনার ব্যাংক একাউন্টে।

আপনার চ্যানেল যদি মনিটাইজড করা থাকে তাহলে ভিডিওতে এড দেখার টাকা জমা হবে গুগল এডসেন্স একাউন্টে এবং এডসেন্স এর সাথে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করা থাকলে প্রতি মাসের টাকা পরের মাসের ২০ থেকে ৩০ তারিখের মধ্যে সরাসরি ব্যাংক থেকে তুলতে পারবনে।

ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা সরাসরি ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে তোলা যায় এই নিয়ে আজকের আর্টিকালে আলোচনা করবো।

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার জন্য সর্বনিন্ম ব্যালেন্স

খুবই গুরুত্ব একটি প্রশ্ন যা মানুষ আমাকে করে থাকে। সর্বনিন্ম কত টাকা ইউটিউব চ্যানেলে জমা হলে আমি তুলতে পারবো?

এর উত্তর হচ্ছে, ইউটিউব থেকে টাকা তোলার জন্য আপনার এডসেন্স একাউন্টে সর্বনিন্ম ১০০ ডলার থাকতে হবে।

১০০ ডলার বা বাংলাদেশি টাকায় ৮৫০০ টাকা হলেই কেবল আপনি টাকাটি তুলতে পারবেন। অন্যথায়, ইউটিউব থেকে টাকা অর্জিত টাকা গুগল এডসেন্সেই পরে থাকবে।

Read More: ইউটিউব ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার উপায়

ইউটিউব পেমেন্ট মেথডগুলো কি কি

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার কেবলমাত্র একটা উপায় আছে আর তা হলো ব্যাংক এর মাধ্যমে টাকা উত্তোলন।

অনেক আর্নিং ওয়েবসাইটে অনেক ধরনের মেথড থাকে, কিন্তু ইউটিউব তথা গুগল এডসেন্স এর একটাই পেমেন্ট মেথড।

ইউটিউবে অর্জিত টাকা হাতে পেতে হলে আপনার একটি ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে। আর একটি ব্যাংক একাউন্ট খুলতে হবে আপনার প্রয়োজন হবে একটি আইডি কার্ড অথবা পাসপোর্ট।

Read More: ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করার উপায়

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার জন্য ভালো ব্যাংক কোনটি

হাতেগুনা কয়েকটি ব্যাংক ছাড়া প্রায় সকল ব্যাংকেই এখন Wire Transfer system রয়েছে।

যে সকল ব্যাংকে Wire Transfer রয়েছে সে সকল ব্যাংক এর মাধ্যমে ইউটিউবের টাকা তোলতে পারবেন।

মোটকথা, রেমিটেন্স সাপোর্ট করে এমন সকল ব্যাংক এর মাধ্যমে ইউটিউওবের টাকা তোলা যায়।

এক্ষেত্রে ভালো ব্যাংক যুক্ত করলে বেশি সুবিধা পাওয়া যায়। টাকা তাড়াতাড়ি চলে আসে।

বাংলাদেশের সবচেয়ে ভালো ব্যাংক হচ্ছে Dutch Bangla Bank Limited বা DBBL

কিন্তু বর্তমানে DBBL এ একাউন্ট করতে ৫০০০ টাকা জমা দিতে হয়।

তাই বিকল্প হিসেবে আপনি ব্যবহার করতে পারেন:

  • Islami Bank
  • Pubali Bank
  • Eastern Bank
  • Bank Asia ইত্যাদি

ইউটিউবের টাকা হাতে আসতে কতদিন সময় লাগে

ইউটিউব থেকে টাকা সরাসরি ব্যাংকে আসতে কতদিন সময় লাগে?

এটি নির্ভর করে আপনি কোন দেশ থেকে টাকা তোলতে চান এর উপর।

গুগল মূলত মাসের ২১ তারিখে ডলার পাঠিয়ে দেয়। কিন্তু, সেটি বাংলাদেশের ব্যাংকে আসতে আরো ৫-১০ দিন সময় লাগে। এক্ষেত্রে DBBL এবং Islami Bank এ টাকা আসতে কম সময় লাগে।

মনে করুন জানুয়ারী মাসে আপনার এডসেন্স একাউন্টে ১০০ ডলার পূর্ন হয়েছে। তাহলে গুগল আপনাকে ফেব্রুয়ারী মাসের ২১ তারিখে পেমেন্ট করে দিবে।

এবং আপনি এটি ব্যাংকের মাধ্যমে হাতে পেতে পেতে ফেব্রুয়ারী মাসের ২৭ তারিখের মধ্যে পাবেন।

একই ব্যাংক একাধিক এডসেন্সে ব্যবহার করতে পারবো?

আপনার একটি এডসেন্স একাউন্ট আছে এবং সেখানে একটি ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করা আছে।

কিন্তু আপনি আরেকটি এডসেন্স পাওয়ার পর ভাবছেন সেখানেও ঠিক একই ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করবেন।

তাহলে আপনি খুব বড় একটি ভুল করতে যাচ্ছেন।

কারন, গুগল এডসেন্স এর নিয়ম হলো আপনার পরিবারের মধ্যে কেবল একজন একটি এডসেন্স একাউন্ট খুলতে পারবে।

যদিও অনেকে গুগলকে ফাঁকি দিয়ে অনেকসময় একাধিক এডসেন্স একাউন্ট তৈরি করে থাকে। কিন্তু যদি একই ব্যাংক একাধিক এডসেন্সে যুক্ত করা হয় তাহলে তাহলে সেই একাউন্টটি ডিজেবল হয়ে যাওয়ার চান্স থাকে ৯০%।

Read More: গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়

ব্যাংক একাউন্টের নাম কি এডসেন্স এর নামের সাথে মিল থাকতে হবে?

না।

এরকম নির্দিষ্ট কোনো নিয়ম নাই। আপনার ব্যাংক একাউন্টের নাম যেকোনো কিছু হতে পারে। এতে ইউটিউব এডসেন্স থেকে টাকা তোলতে কোনো সমস্যা হবে না আশা করি।

এমনকি আপনার এডসেন্সে আপনি আপনার বাবার ব্যাংকও যুক্ত করতে পারবেন।

এতেও কোনো সমস্যা হবে না।

তবে লক্ষ রাখবে একই ব্যাংক একাউন্ট যেনো একাধিক এডসেন্সের মধ্যে যুক্ত না করা হয়।

Read More: গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করার সবচেয়ে সহজ উপায়

পিন ভেরিফাই নিয়ে যত ঝালেমা

আমরা যারা গুগল এডসেন্স নিয়ে কাজ করি তাদের সচারাচর একটি ঝামেলা পোহাতে হয়। আর সেটি হলো এডসেন্স পিন ভেরিফাই করা।

আপনার একাউন্টে যখন ১০ ডলার হয়ে যাবে তখন গুগল থেকে আপনার পার্শবর্তী পোস্ট অফিসে আপনাকে একটি চিঠি পাঠাবে।

সেই চিঠির মধ্যে একটি পিন নাম্বার থাকবে যা দিয়ে আপনাকে আপনার গুগল এডসেন্স একাউনটি ভেরিফাই করতে হবে।

ঢাকা শহরে যারা আছেন তারা এই চিঠিটি ৩ সপ্তাহের মধ্যে পেয়ে যায়, কিন্তু উপকূলীয় অঞ্চলে পিন ভেরিফাই করার এই চিঠিটি আসতে অনেক সময় ২-৩ মাস সময়ও লেগে যায়।

তাই এটা নিয়ে অনেক সময় অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়।

একানে উল্লেখ্য যে এডসেন্স একাউন্ট পিন ভ্যারিফাই না করলে আপনি ইউটিউব থেকে অর্জিত টাকা তোলতে পারবেন না।

ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়

বোকার মতো প্রশ্ন।

আমি যদি বলি চাকরী করে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায় এর সঠিক উত্তর কি আপনি দিতে পারবেন?

পারবেন না।

কারন একেক চাকরীর বেতন একেক রকম।

ঠিক তেমনি বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলের আর বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে।

তবে ভিডিও যদি বাংলাদেশি ভিউ না হয়ে ইউরোপ কিংবা আমেরিকা থেকে ভিউ হয় তাহলে আয়ের পরিমান অনেক বেড়ে যায়। বলা যায় দশগুন বেশি আয় হয়।

তবে মোটামোটি বাংলাদেশ থেকে যদি প্রতিমাসে ৫০ হাজার ভিউ হয় তাহলে ১০০ ডলারের মতো আপনার ইনকাম হবে ইনশাআল্লাহ।

Read More: ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

বিকাশের মাধ্যমে টাকা তোলার কোনো উপায় আছে?

না।

যেহেতু টাকাটি আসবে গুগল থেকে তথা অন্য আরেকটি দেশ থেকে তাই যে ব্যাংকে রেমিট্যান্স সিস্টেম চালু আছে কেবল সেই ব্যাংকের মাধ্যমেই টাকা ইউটিউব থেকে টাকা তোলা যাবে।

বিকাশ কেবল মাত্র বাংলাদেশের ভেতরে ব্যবহারের জন্য তাই এর মাধ্যমে এডসেন্স এর টাকা তোলার কোনো প্রশ্নই আসে না।

ইউটিউব এডসেন্স এ ব্যাংক যুক্ত করার নিয়ম

আমরা উপরে জানলাম ইউটিউব থেকে টাকা তোলতে হলে গুগল এডসেন্স এর সাথে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করতে হয়।

এ পর্যায়ে আমরা জানবো কি উপায়ে গুগল এডসেন্স এর সাথে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করা যায়।

স্টেপ ১ঃ এডসেন্স একাউন্টে প্রবেশ করুন

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার জন্য আপনাকে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করতে হবে এবং এর জন্য প্রথমে এডসেন্স একাউন্টে প্রবেশ করতে হবে।

তো এডসেন্স একাউন্টে প্রবেশের জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং সাইন-ইন করুন।

এডসেন্স একাউন্টে প্রবেশ করুন

স্টেপ ২ঃ বাম পাশের মেনু থেকে Payments এ ক্লিক করুন

এডসেন্স এ প্রবেশ করার বাম পাশে একটি মেনু দেখতে পাবেন এবং সেখানে Payments নামে একটি অপশন আছে। কেবল সেখানে একটি ক্লিক করুন।

payments এ ক্লিক করুন

স্টেপ ৩ঃ Add payments Methods এ ক্লিক করুন

আপনার একাউনট যদি একদম নতুন থাকে এবং এর আগে কখনো ব্যাংক যুক্ত করা না হয়ে থাকে তাহলে এখানে Add payments Methods নামে একটি অপশন থাকবে।

আপনাকে কেবল এটাতে ক্লিক করতে হবে। এবং এখানে ক্লিক করার পর আপনি আপনার একাউনটি যুক্ত করতে পারবেন।

স্টেপ ৪ঃ প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করুন

এডসেন্স এর সাথে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করতে হলে আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য আগে সংগ্রহ করে নিতে হবে।

যেমন Bank Name, Branch Name, Bank Address, Swift Code, Account name, Account Number

যেকোনো ব্যাংকে একাউন্ট খোলার পর আপনাকের তারা একটি একাউন্ট নাম্বার দিয়ে দিবে।

কিন্তু ব্যাংকের সঠিক এড্রেস এবং Swift Code জানার জন্য আপনি তাদের কাছ থেকে জিজ্ঞাসা করে জেনে নিবেন।

কিংবা, ব্যাংকের যেকোনো অফিসারের একটি বিজনেস কার্ড চেয়ে নিয়ে নিবেন। তাছাড়াও এগুলো আপনি গুগলে সার্চ করে জেনে নিতে পারবেন।

Conclusion

একবার এডসেন্স পেয়ে যদি সেখানে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করে দেওয়া হয় তাহলে আর কোনো চিন্তা থাকে না। যখই ১০০ ডলার পূর্ন হয় টাকা ব্যাংক এ চলে আসে।

আশা করি কিভাবে গুগল এডসেন্স এর সাথে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করতে হয় এবং ইউটিউব থেকে টাকা তোলার উপায় সম্পূর্নভাবে জানতে পেরেছেন।

তারপরও যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। কিংবা আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন হয়ে যেকোনো জিজ্ঞাসা করতে পারেন।

Tech BD Trickshttp://techbdtricks.com
তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন খবর সবার আগে পেতে চাইলে Tech BD Tricks এর সাথেই থাকুন। দেশের বেকারত্ব হ্রাস এবং টেকনোলজি বিষয়ক তথ্য মানুষের কাছে সঠিকভাবে পোছে দিতে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Recenty published

Most Popular

error: Content is protected !!