টিপস অ্যান্ড ট্রিকস

ওয়েবসাইটে দ্রুত গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় ২০২১

গুগল এডসেন্স হলো গুগলের একটি বিজ্ঞাপন প্রচার প্রোগ্রাম। যারা অনলাইন থেকে ব্লগিং করে ইনকাম করার আগ্রহী তারা তাদের ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এর বিজ্ঞাপন দেখানোর মাধ্যমে আয় করতে পারেন। তো আজকে আমি কথা বলবো ওয়েবসাইটে দ্রুত গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় সম্পর্কে।

চলুন ধাপে ধাপে আলোচনা করি,

১. প্রিমিয়াম ডোমেইন ব্যবহার করুন

গুগল এডসেন্স পাওয়ার জন্য ডোমেইন নাম ভালো হওয়া আবশ্যক। কেননা উচ্চমানের ডোমেইন ছাড়া এডসেন্স পাওয়া খুব কঠিন হয়ে যায়। আর দেখা গেছে উচ্চমানের ডোমেইন গুলোতে বিশেষ করে .com ডোমেইনে খুব দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়া যায়।

তাই, চেষ্ঠা করুন .com ডোমেইন নেওয়ার জন্য। তাছাড়া (.info, .in, .org) এরকম উচ্চমানের যেকোনো একটি ডোমেইন নিয়ে কাজ করতে পারেন।

২. গুরুত্বপূর্ণ পেজসমূহ যুক্ত করুন

গুগল এডসেন্স এ এপ্লাই করার আগে নিশ্চিত করুন আপনার ওয়েবসাইটে গুরুত্বপূর্ন পেইজগুলো রয়েছে। গুরুত্বপূর্ন পেইজ বলতে Privacy policyContact UsDisclaimerAbout Us  এই পেইজ গুলোকে বুঝায়।

এই পেইজগুলো রয়েছে তা নিশ্চিত করুন এবং এসব পেইজের ভিতরে সঠিক তথ্য দেওয়া উচিত । বিশেষ করে Privacy policy পেইজে সঠিক তথ্য না থাকলে সমস্যা হতে পারে।

তাই আপনি এসকল পেইজ তৈরি করুন এবং এতে সঠিক ইনফরমেশন দিয়ে রাখুন। আপনি চাইলে ফ্রিতে Privacy policy পেইজ জেনারেট করতে পারবেন এখান থেকে- https://www.privacypolicygenerator.info/

৩. ওয়েবসাইটি সুন্দর ভাবে সাজান

গুগল এডসেন্স পেতে হলে আপনার সাইটের ডিজাইন হওয়া চাই খুবই প্রোফেশনাল । যদি আপনার সাইটের ডিজাইন ভাঙ্গাচোরা হয় তাহলে কি দেখে আপনাকে গুগল আপনারা সাইটে এডসেন্স দিবে? নিজেই ভাবুন।

তাই প্রথমে আপনার সাইটির ডিজাইন সুন্দর হতে হবে।মোটকথা, আপনার সাইট দেখে যেন কোনো কিছুর কমতি আছে মনে না হয়।

সাইটে সুন্দর করে একটি মেনু রাখুন, মেনুতে ৪-৫ টি ক্যাটাগরী রাখুর প্রতিটি ক্যাটাগরীতে অন্তত ৫ টি করে কপিরাইট্মুক্ত কন্টেন্ট রাখুন এবং সাইটের হেডার এবং ফোটারটি সুন্দর করে সেট করুন। বেস, হয়ে গেছে একটি প্রোফেশনাল ডিজাইন। আপনি যদি করতে না পারেন তাহলে কাউকে দিয়ে করিয়ে নিন কিংবা আমাদের ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে আর্টিকাল আছে সেগুলো পড়ে ফেলুন।

৪. কমপক্ষে ৩০ টি আর্টিকাল লিখুন

কন্টেন্ট গুগল এডসেন্সের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ । কেননা-

আপনি যখন এডসেন্সে প্রবেশ করবেন প্রথমই দেখবেন বড় করে লেখা আছে “আপনার কন্টেন্ট আমাদের কাছে মূল্যবান”

তাই সবথেকে বেশি কন্টেন্টের উপর জোর দিতে হবে। সাধারনত ২৫-৩০ টি কোয়ালিটিফুল কন্টেন্ট থাকলেই এডসেন্স পাওয়া যায়। কিন্তু আপনি চেষ্ঠা করবেন ৩০ টির বেশি আর্টিকাল নিয়ে এডসেন্সে এপ্লাই করতে । তাহলে খুব দ্রুত এপ্রোভাল পেয়ে যাবেন।

আর কন্টেন্টগুলো তো অবশ্যই কপিরাইট মুক্ত হওয়া চাই। এবং কন্টেন্টগুলোর অন-পেইজ এসইও সম্পূর্ন করুন। এতে করে গুগল আপনার সাইটিকে আরো বেশি মূল্যবাল মনে করবে।

৫. কপিরাইট ইমেজ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন

অনেকে অনেক সময় সব ঠিকঠাক রাখে কিন্তু সাইটের ইমেইজগুলো ডাইরেক্ট অন্য সাইট থেকে কিংবা ফেসবুক,টুইটার বা বিভিন্ন জায়গা থেকে এনে ওয়েবসাইটের আর্টিকালে ব্যবহার করে। এর ফলে সে আর এডসেন্স পায় না । এবং বুঝতে ও পারে না যে কি কারনে সে এপ্রোভাল পায় নাই।

তাই আপনারা যারা সাইটে ইমেইজ ব্যবহার করবেন চেষ্ঠা করবে কপিরাইট্মুক্ত ইমেইজ ব্যবহার করায়। ফ্রিতে কপিরাইট মুক্ত ইমেইজ পেতে পারেন এখান থেকে- https://www.pexels.com

এখান থেকে ছবি কালেক্ট করেও একটু-আকটু এডিট করে ব্যবহার করে ব্যবহার করুন,তাহলে ভালো হবে।

৬. অন্য কোনো এড নেটওয়ার্ক ব্যবহার করবেন না

আপনি যদি দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পেতে চান তাহলে আপনার সাইটে যদি অন্য কোনো এড নেটওয়ার্ক থেকে থাকে তাহলে সেগুলো আগে রিমুভ করুন ।

কেননা এতে এডসেন্স এপ্রুভাল পেতে সমস্যা হয়। তাছাড়া, অন্যান্য পপ-আপগুলোও রিমুভ করে দিলে ভালো হয়।

৭. আর্টিকালগুলো কমপক্ষে ৭০০ ওয়ার্ডের বেশি লেখার চেষ্ঠা করুন

আগেই বলেছি আর্টিকাল খুবই গুরুত্বপূর্ন বিষয় গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার ক্ষেত্রে। এডসেন্স পাওয়ার জন্য আপনার আর্টিকালগুলো একটু বর হলে ভালো হয়। তাই আমরা সাজেস্ট করি আর্টিকাল গুলো যেনো ৭০০ শব্দের বেশি হয়।

শুধু মাত্র এডসেন্সের জন্য জন্য নয়। আপনি যদি ব্লগিং করেন তাহলে অবশ্যঅই এসইও সম্পর্কে জানেন। আর কোয়ালিটি কন্টেন্ট/আর্টিকাল না হলে এসইও করে সাইট রেংক করানো যায় না এ বিষয়টিও হয়তো জানেন। তাই আর্টিকালগুলো সব বিস্তারিত লিখার চেষ্ঠা করুন এবং যেন একটু বড় হয় সেদিকে খেয়াল রাখুন।

আরো পড়ুনঃ গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করার সবচেয়ে সহজ উপায়

সর্বশেষ কথা

উপরের আর্টিকালটি পড়ার পরেও যদি গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় সম্পর্কে কারো কোনো সমস্যা বা জিজ্ঞাসা থাকে তাহলে নির্দ্বিধায় কমেন্ট করে জানাতে পারেন অথবা ফেসবুকে যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা সকলের সমস্যা সমাধানের চেষ্ঠা করবো। এবং আমাদের লেখা আর্টিকালগুলো কেমন লাগে জানাতে ভুলবেন না ।

সামনে কি বিষয় নিয়ে আর্টিকাল লিখবো তা ও জানাতে পারেন। আর আপনারা চাইলে আমাদের ফেসবুক পেইজের সাথে যুক্ত থাকতে পারেন।

ফেসবুক গ্রুপঃ https://www.facebook.com/techbdtricks.update

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close