নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম ২০২৪

নগদ একাউন্ট খোলা হলে এর বিভিন্ন সেবা নিতে গেলে নগদ একাউন্ট দেখার প্রয়োজন পরে। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই নগদ অ্যাপস এর মাধ্যমে নগদ একাউন্ট দেখতে পারলেও, বাটনফোন ব্যবহারকারীদের তা সম্ভব হয় না। তাদের কোড ডায়াল করে একাউন্ট দেখতে হয়। আজকের পোস্টে নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম নিচে আলোচনা করবো।

নগদের সকল সেবা পেতে হলে নগদ একাউন্ট এক্সেস করতে হবে। সকল বাংলদেশীদের জন্য রয়েছে নগদ একাউন্ট দেখার ২ টি উপায়।

  • কোড ডায়াল করে
  • এপস এর মাধ্যমে

কোড ডায়াল করে নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

যাদের বাটন ফোন রয়েছে তারা কেবল কোড ডায়াল করার মাধ্যমে নগদ একাউন্ট দেখতে পারেন।

কোড ডায়াল করে নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম একদম সহজ। এর জন্য আপনার বাটন ফোনে *167# কোড ডায়াল করতে হবে।

যদি স্মার্টফোন থেকে কোড ডায়াল করে নগদ একাউন্ট দেখতে চান সেটাও করতে পারেন, কোনো সমস্যা নাই।

প্রদত্ত কোড ডায়াল করার পর যদি লেখা আসে যে – I am authorizing Nagad to collect my NID data from my mobile operator & other; accepting the T&C to open my account. Set 4-digit PIN:”, তাহলে বুঝতে হবে উক্ত মোবাইল নাম্বার দিয়ে নগদ একাউন্ট খোলা হয়নি।

আর যদি আগে থেকে নগদ একাউন্ট খোলা থাকে তাহলে ৮ টা অপশন আসবে। নিচে দেওয়া লিস্টের মতো –

  1. Cash Out
  2. Send Money
  3. Mobile Recharge
  4. Payment
  5. Bill Pay
  6. EMI Payment
  7. My Nagad
  8. PIN Reset

এখান থেকে ৭ নাম্বার অপশন (My Nagad) সিলেক্ট করলে নগদ একাউন্ট ব্যালেন্স দেখতে পারবেন।

এপস এর মাধ্যমে নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

যাদের কাছে স্মার্টফোন রয়েছে তাদের জন্য নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম আরো সহজ। এর জন্য প্রথমে প্লে স্টোর থেকে Nagad এপসটি ডাউনলোড করতে হবে।

নগদ এপ মোবাইলে ইন্সটল করা হয়ে গেলে মোবাইল নাম্বার এবং পিন নাম্বার দিয়ে নগদ একাউন্ট এ ঢোকা যাবে।

মোবাইল থেকে নগদ এপস এ ডুকলে নগদের বিভিন্ন ফিচার যেমন সেন্ড মানি, ক্যাশ আউট, মোবাইল রিচার্জ, ইত্যাদি দেখতে পারবে।

এপস এর হোম পেইজের উপরের দিকে (নগদের লোগোর নিচে) ছোট করে লেখা আছে “ব্যালেন্স জানতে ট্যাপ করুন”, এই বাটনে ক্লিক করলে আপনার নগদ একাউন্টের ব্যালেন্স দেখতে পারবেন।

নগদ স্টেটমেন্ট এবং ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম

অনেক সময় নগদ একাউন্টে কত টাকা আছে কিংবা লেনদেন এর একটি ছোটখাটো স্টেটমেন্ট দেখার প্রয়োজন পরে।

নগদ স্টেটমেন্ট দেখার জন্য প্রথমে *167# কোড ডায়াল করে একাউন্টে যেতে হবে। তারপর ৭ নং অপশন (My Nagad” বাছাই করতে হবে।

এরপর ২ নাম্বারে Mini Statement নামক একটি অপশন পেয়ে যাবেন। সেখানে ক্লিক করলে আপনাকে নগদে লেনদেনের হিস্টোরী/ মিনি স্টেটমেন্ট দেখাবে।

আর যদি ১ নগদ ব্যালেন্স চেক করতে চান তাহলে ১ নাম্বার অপশন বাছাই করবেন।

নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখার নিয়ম

অনেক সময় একাউন্টে ক্যাশ ইন করতে কিংবা অন্য কারো মোবাইলে সেন্ড মানি করতে সে ব্যাক্তির নগদ একাউন্ট নাম্বার জানা প্রয়োজন হয়।

নগদের আলাদা করে কোনো একাউন্ট নাম্বার হয় না। আপনি যে মোবাইল নাম্বার দিয়ে নগদ একাউন্টটি খুলেছেন সেটাই নগদের একাউন্ট নাম্বার।

তো, আপনি যদি আপনার নগদ একাউন্ট নাম্বার ভুলে গিয়ে থাকেন তাহলে আপনার সিম থেকে *167# ডায়াল করে নগদ একাউন্ট চেক করে নিবেন।

এটি ডায়াল করার পর যদি আপনার নগদ একাউন্ট এর অপশনগুলো আসে তাহলে বুঝে নিবেন যে মোবাইল নাম্বার থেকে কোড ডায়াল করেছেন সে নাম্বারটিই হচ্ছে নগদের একাউন্ট নাম্বার।

নগদ ব্যবহারের সুবিধা ও এর সেবাসমূহ

নগদ বাংলাদেশে ক্রমশ উন্নয়নশীল মোবাইল ব্যাংকিং সেবার নাম। এক উন্নয়নশীল বলার কারন হচ্ছে দিন দিন এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

কেননা নগদ দিচ্ছে বাংলাদেশে সবচেয়ে কম ক্যাশ আউট চার্জ যা হাজারে মাত্র ১১.৪৯ টাকা। যেখানে অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং কম্পানিগুলো ক্যাশ আউট চার্জ ২০ টাকার কাছাকাছি নিয়ে থাকে।

সেন্ড মানি, মোবাইল রিসার্জ, ক্যাশ-আউট, বিল পে করা ছাড়াও নগদ এমন কিছু সেবা প্রধান করছে যেগুলো সচারাচর সব কম্পানি করে না।

যেমনঃ

নগদ ইন্সুরেন্স পলিসি

নগদের এই সেবা ব্যবহার করে আপনি ঘরে বসে বিভিন্ন ইন্সুরেন্স কম্পানির সেবা নিতে পারবেন। এ সেবাটি ব্যবহার করে বিভিন্ন ইন্সুরেন্স কম্পানিতে টাকা জমাতে পারবেন।

এবং ইন্সুরেন্স এর মেয়াদ শেষ হলে মুনাফাসহ নগদে টাকা পাবেন।

উপবৃত্তির টাকা

আপনারা হয়তো সকলে অবগত যে উপবৃত্তির টাকা নগদে প্রেরন করা হয়। তাই, যারা স্কুল-কলেজে লেখাপড়া করেন তাদের উপবৃত্তির টাকা হাতে পেতে নগদ ব্যবহার করতে হবে।

টিকিট বুকিং

নগদ অ্যাপ ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন টিকিট বুক করতে পারবেন। নগদে বাস টিকিট, ট্রেন টিকিট এবং বিমানের টিকিট কাটার উপায় রয়েছে।

এছাড়াও নগদের মাধ্যমে রাস্তা, সেতুর টুল প্রদান করা যায়।

ইএমআই পেমেন্ট

নগদের এই অপশনটি ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন ফাউন্ডেশন বা উন্নয়ন সংস্থায় টাকা দান করতে পারবেন।

দান করার পর এখান থেকে আপনি চাইলে দানের রিসিট ও সংগ্রহ করতে পারবেন।

নগদ থেকে টাকা ইনকাম

নগদ থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। যেমনঃ নগদ রেফার করে, নগদ এজেন্ট হয়ে, নগদ থেকে ক্যাশব্যাক নিয়ে ইত্যাদি উপায়ে এখান থেকে অর্থ উপার্জন করার সুযোগ রয়েছে।

নগদ থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে নগদ একাউন্ট খুলতে হবে।

সর্বশেষ

আমরা নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম এবং নগদের ব্যালেন্স দেখার নিয়ম ইত্যাদি আরো অনেক তথ্য জেনে নিলাম। এখন নগদ ব্যবহার করা আশা করি আগের থেকে অনেক সহজ মনে হবে।

কিভাবে নগদ একাউন্ট দেখতে হয় সেটি আশা করি সকলে বুঝতে পেরেছেন। তাছাড়াও আর্টিকালটিতে নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখার নিয়ম, নগদ একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম ইত্যাদি খুটিনাটি অনেক বিষয়ে ইনফরমেশন যুক্ত করে দিয়েছি।

Leave a Comment