উপায় একাউন্ট খোলার নিয়ম 2024

উপায় (Upay) একটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। কিভাবে উপায় একাউন্ট খুলতে হয় তা না জানার কারণে অনেকেই এর সেবা নিতে পারে না। উপায় এ সব ধরণের মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা থাকার কারণে এটিও বিকাশ ও নগদের মত জনপ্রিয়। এই আর্টিকেলে আমরা উপায় একাউন্ট খোলার নিয়ম ও এর সুবিধা সম্পর্কে জানবো। 

উপায় কি?

উপায় হচ্ছে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (UCB) এর একটি ডিজিটাল মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। এই প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয় ২০২১ সালের ১৭ মার্চ। অন্যান্য ব্যাংকিং পরিষেবার মত, উপায় একাউন্ট দিয়েও ক্যাশ আউট থেকে শুরু করে মোবাইল রিচার্জ, সেন্ড মানি, ইলেকট্রিক বিল পেমেন্ট এর পাশাপাশি অনলাইন শপিং, অন্য একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার, ইন্ডিয়ান ভিসার বিল ইত্যাদি সব ধরণের কাজ করা যায়।

উপায় একাউন্টের সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো, এর সর্বনিম্ন ক্যাশ আউট চার্জ। এটিএম বুথ থেকে টাকা তুলতে হলে ক্যাশ আউট চার্জ হাজারে ৮ টাকা আর এজেন্ট এর মাধ্যমে তুললে হাজারে ১৪ টাকা চার্জ দিতে হবে। 

একাউন্ট খুলতে যা প্রয়োজন

যদি আপনার একটি এন্ড্রয়েড ফোন থাকে, তাহলে ঘরে বসেই খুলতে পারবেন উপায় একাউন্ট। খুলতে যা যা লাগবে:

  • একটি সিম
  • একটি অ্যান্ড্রয়েড ফোন
  • এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  • জাতীয় পরিচয়পত্র বা এন আই ডি কার্ড (NID)

উপায় একাউন্ট খোলার নিয়ম 

উপায় একাউন্ট খোলার নিয়ম একদম সহজ। নিচের স্টেপ অনুসরণ করলে আপনি সহজেই উপায় একাউন্ট খুলতে পারবেন । নিচে বিস্তারিত দেখানো হলো-

স্টেপ ১ঃ রেজিস্ট্রেশন

উপায় একাউন্ট খোলার জন্যে প্রথমে গুগল প্লে-স্টোর থেকে উপায় অ্যাপস ডাউনলোড করতে হবে।

তবে এই অ্যাপস শুধু মাত্র এন্ড্রয়েড ফোনেই পাওয়া যাবে, এপল বা অন্যান্য ফোনে পাওয়া যাবে না।

অ্যাপস ডাউনলোড হয়ে গেলে, রেজিস্ট্রেশন শুরু করতে হবে।

উপায় অ্যাপটি চালু করার পর প্রথমেই রেজিস্ট্রেশন ও লগ ইনের অপশন আসবে।

একবার রেজিস্ট্রেশন করে নিলে পরবর্তীতে লগ ইন করতে আর সমস্যা হবে না। রেজিস্ট্রেশন করার সময় ডিভাইসের অবস্থান বাংলাদেশ কি না তা অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। 

স্টেপ ২ঃ মোবাইল নম্বর যাচাই

উপায় একাউন্ট খোলার ক্ষেত্রে এই ধাপটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ মোবাইল নম্বর ভুল হলে আপনার উপায় একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন বাতিল হয়ে যাবে।

যেই নম্বরে একাউন্ট খুলবেন সেটি “Mobile Number” লেখার অপশনে লিখতে হবে। এরপর নম্বরটি কোন অপারেটরের তা সিলেক্ট করে “Verify Number” এ ক্লিক করতে হবে। 

ভেরিফাই অপশনে ক্লিক করার পর মোবাইল নম্বর যাচাই করার জন্যে আপনার ফোনে একটি OTP code আসবে। চার সংখ্যার এই কোড নম্বরটি অটোমেটিক ভাবে মোবাইলে ইনপুট হয়ে যাবে। আর যদি কোন কারণে না হয় তাহলে হাতে টাইপ করে দিতে হবে। 

সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াকে সম্পন্ন করতে অ্যাপকে এসএমএস দেখার জন্যে অনুমতি দিতে “allow” বাটনে ক্লিক করতে হবে। নম্বর যাচাই হতে সর্বোচ্চ ১ মিনিট সময় লাগতে পারে। তবে খেয়াল রাখতে হবে, এই সময় অ্যাপ থেকে বের হওয়া যাবে না অথবা অ্যাপটি কোনোভাবে যেন বন্ধ না হয়। অন্যথায় আবার প্রথম থেকে শুরু করতে হবে। 

স্টেপ ৩ঃ জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই

উপায় একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করে নিতে হবে।

জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করার জন্যে সরাসরি ফোনের ক্যামেরা ব্যবহার করে প্রথমে আইডি কার্ড এর সামনের অংশের ছবি এবং পরবর্তীতে এর পিছনের অংশের ছবি তুলে আপলোড করতে হবে।

ছবি তোলা ঠিক থাকলে “Done” বাটনে ক্লিক করতে হবে। ছবিতে কোনো সমস্যা থাকলে “Please capture Again” অপশনে ক্লিক করে পুনরায় ছবি তুলতে পারবেন। 

এরপর ফ্রন্ট ক্যামেরা দিয়ে আপনার মুখের ছবি তুলে আপলোড করুন। ছবি তোলার সময় অবশ্যই আলোক উজ্জ্বল স্থানে দাঁড়াবেন এবং খেয়াল রাখতে হবে যেন সমস্ত মুখমণ্ডল ছবির ফ্রেমের মাঝে থাকে। 

ছবি তোলার পর জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই সফল হয়েছে কিনা তা দেখাবে। সফল হলে “NID verification succeed” লেখা আসবে।  

স্টেপ ৪ঃ পেশা ও লিঙ্গ

উপায় একাউন্ট খোলার জাতীয় পরিচয় পত্র যাচাইয়ের ধাপ শেষ হলেই আপনার পেশা ও লিঙ্গ নির্ধারণের অপশনগুলো আসবে।

প্রথমে আসবে “Your Occupation” অপশনটি। এখানে অনেক গুলোর পেশার নাম দেয়া থাকবে সেখান থেকে আপনার পেশাটি সিলেক্ট করতে হবে। আপনার পেশার নাম উল্লেখ না থাকলে তা লিখে ফেলুন। 

এরপর আপনি পুরুষ না মহিলা তা যাচাইয়ের জন্যে লিঙ্গ নির্ধারণের অপশন আসবে। এখান থেকে লিঙ্গ নির্ধারণ করতে হবে।

এছাড়া এখানে আরো একটি অপশন থাকবে ইমেইল এর। এটি ঐচ্ছিক; ইচ্ছা হলে দিতে পারেন আবার নাও দিতে পারেন। 

স্টেপ ৪ঃ জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য যাচাই

উপায় একাউন্ট খোলার এই পর্যায়ে জাতীয় পরিচয়পত্রে আপনার যে তথ্য দেয়া আছে তার একটা প্রিভিউ আসবে যেখান থেকে তথ্য গুলো ঠিক আছে কিনা তা যাচাই করতে হবে। জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর, নিজের নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম, জন্ম তারিখ, ঠিকানা ইত্যাদি তথ্য গুলোতে নামের বানান ঠিক আছে কিনা কিংবা অযাচিত কোনো ফুলস্টপ বা কমা আছে কিনা তা যাচাই করতে হবে।

সবগুলো তথ্য নিশ্চিত করে “I agree with “ অপশনে ক্লিক করে “confirm” বাটনে ক্লিক করতে হবে। 

স্টেপ ৫ঃ পিন নম্বর তৈরি করা

এবারে আপনাকে চার ডিজিটের একটি পিন তৈরি করতে হবে। পিন নম্বর সাধারণত একটু কঠিন দেয়াই উচিত কারণ এটি একটি গোপনীয় ও খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একাউন্টের সেফটির জন্যে পিন নম্বর কাউকে জানাতে হয় না।

পিন নম্বর তৈরির সময় কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে।

  • একই সংখ্যা বারবার দেয়া যাবে না। যেমনঃ ৪৪৪৪, ৮৮৮৮
  • পিন নম্বরের প্রথম সংখ্যা শূন্য (০) দেয়া যাবে না। 

পিন নম্বর লেখা হলে এটি কনফার্ম করার জন্যে আর একবার লিখতে হবে। এরপর confirm বাটনে ক্লিক করে পিন নম্বর তৈরির কাজ সম্পন্ন করতে হবে। 

পিন নম্বর ভুলে গেলে উপায় হেল্প লাইন ১৬২৬৮ এ ফোন দিয়ে কাস্টমার সাপোর্ট অফিসারের কাছে NID এর তথ্য দিয়ে পিন নম্বর ঠিক করে নিতে পারবেন।

স্টেপ ৬ঃ উপায় একাউন্ট লগ ইন

একাউন্ট তৈরি সফল ভাবে সম্পন্ন হলে ফোনে একটি কনফার্মেশন এসএমএস আসবে। এরপর welcome to upay নামে একটি পেজ আসবে। এই পেজে get started অপশনে ক্লিক করলে আপনার একাউন্টটি চালু হবে। 

এরপর একাউন্টে লগ ইন করতে আপনার যে ফোন নম্বর দিয়ে একাউন্ট খোলা হয়েছে সেটি  ও পিন কোড বসিয়ে লগ ইন করতে হবে। অ্যাপ ছাড়া *২৬৮# ডায়াল করেও আপনি মোবাইল রিচার্জসহ অন্যান্য সার্ভিস গুলো উপভোগ করতে পারবেন।

অ্যাপ ছাড়া Upay একাউন্ট খোলার নিয়মঃ

অ্যাপ ছাড়া  একাউন্ট খুলতে আপনার নিকটস্থ উপায় এজেন্টের কাছে জাতীয় পরিচয়পত্র, ছবি ও সিম কার্ড নিয়ে যেতে হবে। সব কিছু ঠিক থাকলে এজেন্ট আপনার একাউন্ট খুলে দিবে। 

কিছু ভুল ধারনা ও উত্তর

  • অনেকেই মনে করেন একাউন্ট খোলার জন্যে নতুন সিম লাগবে। পুরাতন সিম অথবা অন্যের নামে রেজিস্ট্রেশন করা সিম দিয়ে একাউন্ট খোলা যাবে না। এটি ভুল ধারনা। পুরাতন সিম অথবা অন্য যে কার নাম দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা সিম দিয়ে আপনি উপায় একাউন্ট খুলতে পারবেন। 
  •  একাউন্ট খুলতে জাতীয় পরিচয়পত্র ও ছবি ছাড়া আর কোনো ডকুমেন্ট এর প্রয়োজন নেই।
  • আবার অনেকেই ভাবেন, উপায় একাউন্ট থেকে শুধু দেশের মধ্যেই লেনদেন করা যাবে। এটাও একটি ভুল ধারনা। উপায় একাউন্ট থেকে বিদেশেও লেনদেন করা যাবে। সহজেই রেমিট্যান্স গ্রহণ করা যাবে এবং ক্যাশ আউটও করা যাবে। 

সম্পর্কিত আর্টিকালঃ বিকাশ থেকে টাকা তোলার নিয়ম

উপরের আলোচনা থেকে এতক্ষণে নিশ্চয় জেনে গেছেন, উপায় একাউন্ট খোলার নিয়ম। তাহলে আর দেরি না করে, দ্রুত একাউন্ট খুলে ফেলেন এবং উপায় এর আকর্ষণীয় সব অফারগুলো গ্রহণ করুন।  

Avatar of Shakib Hasan

Blogger and SEO Expert. Founder of Techbdtricks. I always try to explore something new and let the people know about that. Keep me in your prayers.

Leave a Comment