মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম – যেভাবে চার্জ দিলে ব্যাটারী ভালো থাকে

বর্তমানের স্মার্টফোনগুলোতে Not Removable ব্যাটারী ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ফলে ব্যাটারী নষ্ট হয়ে গেলে সেটি পরিবর্তনের জন্য সম্পূর্ন মোবাইল খুলতে হয়। মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম অনুসরন না করার কারনে বেশিরভাগ মানুষের ব্যাটারী নষ্ট হয়ে যায়। তাই আজকে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম গুলো আপনাকে বলে দিবো। সে নিয়মগুলো মেনে মোবাইল চার্জ করলে ব্যাটারী হেলথ ভালো থাকবে এবং সহজে ব্যাটারী নষ্ট হবে না।

তাছাড়া আপনি যদি চান আপনার মোবাইলের চার্জ অনেক বেশি সময় স্থায়ী হোক তাহলে সঠিক নিয়মে মোবাইল চার্জ করার বিকল্প নেই। তাই দেরী না করে মোবাইল চার্জ করার নিয়ম দেখে নিন

মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম

ব্যাটারির হেলথ ভালো রাখতে মোবাইলে চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম মেনে চলার বিকল্প নেই। আপনি যদি ব্যাটারি চার্জ বেশি থাকার উপায় কিংবা মোবাইল চার্জ হতে বেশি সময় লাগার সমস্যার ভুগে থাকেন তাহলে অবশ্যই মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম জেনে নিবেন।

নতুন মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে এখন আলোচনা হবে। দেখে নিন কিভাবে চার্জ দিলে ব্যাটারি ভালো থাকে এবং ব্যাটারি চার্জ বেশি থাকার উপায় কি।

1. মোবাইলের অরিজিনাল চার্জার দিয়ে চার্জ করুন  

মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে সর্বপ্রথম যে কথাটি বলবো তা হলো অরিজিনাল চার্জার দিয়ে মোবাইল চার্জ করুন। মোবাইলের ব্যাটারী হেলথ ভালো রাখতে মোবাইলের অরিজিনাল চার্জার দিয়ে সবসময় মোবাইল চার্জ দিতে হবে। কারন, ফোনের সাথে যে চার্জারটি দেওয়া থাকে সেটি পরীক্ষিত এবং প্রস্তাবিত। আসল চার্জার ব্যাতীত মোবাইল চার্জ করলে ফোনের চার্জ ধরে রাখার ক্ষমতা আস্তে আস্তে কমে যেতে থাকে। 


2. অন্য ফোনের চার্জার ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন

মোবাইল কম্পানিগুলো ভিন্ন ভিন্ন মোবাইলে ভিন্ন ক্ষমতার ব্যাটারী ব্যবহার করে থাকে। সেজন্য মোবাইলের সাথে বিভিন্ন ওয়াটের চার্জার দেওয়া হয়। যদি আপনার 5000 MAh ব্যাটারীর জন্য 18W এর চার্জার দেওয়া হয় তাহলে এটাই আপনার মোবাইলের জন্য আদর্শ চার্জার। এই চার্জার দিয়ে চার্জ করলে আপনার মোবাইলের ব্যাটারী বেশি টেকসই হবে।

কিন্তু আপনি যদি অন্য ফোনের চার্জার অথবা বাজার থেকে সস্থা চার্জার কিনে এনে মোবাইল চার্জ করেন তাহলে আপনার মোবাইল এবং ব্যাটারী দুটোই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এই জন্য মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম মেনে ফোন চার্জ করতে হবে এবং অন্য ফোনের চার্জার ব্যবহার থেকে দূরে থাকতে হবে।

3. অন্য চার্জার ব্যবহার করতে হলে Watt সংখ্যা মিলিয়ে নিন

কোথায় বেড়াতে গিয়ে যদি আপনার ফোনের চার্জ শেষ হয়ে যায় এবং সাথে মোবাইলের আসল চার্জার না থাকে তাহলে এমতাবস্থায় মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম এর বিপরীতে যেতে হয় অর্থাৎ অন্য ফোনের চার্জার ব্যবহার করতে হয়। 

সেক্ষেত্রে আপনার চার্জারের Watt সংখ্যার সাথে মিলে যায় এমন চার্জার দিয়ে ফোন চার্জ করা উচিত। যদি কম/বেশি ওয়াটের চার্জার দিয়ে ফোন চার্জ করেন তাহলে আপনার ব্যাটারী ফুলে নষ্ট হয়ে যেতে পারে। 

4. Over Heating কমাতে সুরক্ষা কেস খুলে মোবাইল চার্জ করুন 

মোবাইল চার্জ দিলে গরম হয় কেন কিংবা মোবাইল চার্জ হলে অনেক সময় লাগে, চার্জ বেশিক্ষন থাকে না ইত্যাদি প্রশ্নগুলো অনেক মানুষ আমাকে করে থাকেন।

আমরা অনেকেই মোবাইলের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে মোবাইলের কভার/কেসিং ব্যবহার করি। একবার মোবাইলে কভার পড়ানো হলে সেটি আর খুলতে চাই না। কিন্তু মোবাইল চার্জ করার সময় মোবাইলের কেস খুলে রাখা উচিত। 

কারন, মোবাইল চার্জে লাগালে মোবাইলের ব্যাটারী কিছুটা গরম হয়। যদি মোবাইলে কেস লাগানো থাকে তাহলে সে গরম বের হওয়ার রাস্তা পায় না ফলে ফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়। আর অতিরিক্ত গরম হলে মোবাইলের প্রসেসর এবং ব্যাটারী ধীরে ধীরে নষ্ট হয়ে যায়।

তাই মোবাইল চার্জ করার সময় এর কভার খুলে রেখে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম মেনে সঠিক নিয়মে মোবাইল চার্জ করা উচিত।

5. অতিরিক্ত গরম হলে চার্জার থেকে মোবাইল খুলে ফেলুন

অনেক মোবাইল আছে যেগুলো চার্জে লাগানোর পর আগুনের মতো গরম হয়ে যায়। এক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্ভন করতে হবে, অতিরিক্ত গরম হলে মোবাইলে চার্জার থেকে খুলে ফেলতে হবে। 

তা না হলে মোবাইল ব্লাস্ট হতে পারে, ঘটে যেতে পারে মস্ত দুর্ঘটনা।

6. Fast Charging অপশন বন্ধ রাখুন

বাজারে কিছু কিছু মোবাইল কম্পানি রয়েছে যারা 5000 MAh এর একটি ব্যাটারী দ্রুত চার্জ করার জন্য 30 Watt এর একটি চার্জার প্রোভাইড করে থাকে। এতে আপনার মোবাইল দ্রুত চার্জ হয় ঠিকই, আবার চার্জ দ্রুতই ফুরিয়ে যায়।

শুধু তাই নয়, ফাস্ট চার্জিং এর ফলে ব্যাটারী কর্ম দক্ষতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে, ফলে ১ বছর অতিবাহিত হওয়ার পর মোবাইলে আর বেশিক্ষন চার্জ থাকে না। 

তাই আমাদের বেশি ওয়াটের চার্জার এবং fast charging এড়িয়ে চলতে হবে, এবং স্বাভাবিক চার্জিং পদ্ধতিতে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম মেনে ফোন চার্জ দিতে হবে।

7. চার্জে লাগিয়ে মোবাইল চালাবেন না 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছি যারা মোবাইল চার্জে লাগিয়ে গেম খেলতে ভালোবাসি। কিন্তু এই কাজটি করা কখনোই উচিত নয়। 

কারন, মোবাইল চার্জে লাগালে অতিরিক্ত তাপ উৎপন্ন হয়, আবার আপনি যদি চার্জে লাগিয়ে গেম খেলা বা অন্য কোনো ভারি কাজ করতে থাকেন তাহলে দ্বিগুন বেশি তাপ উৎপন্ন হয়। যা মোবাইলের ব্যাটারির জন্য মারাত্বক ক্ষতিকর।

এক্ষেত্রে একই সাথে ব্যাটারীতে চার্জ ইন এবং চার্জ আউট হচ্ছে, যার ফলে ব্যাটারী ফুলে যাওয়া, নষ্ট হয়ে যাওয়া, বেশি সময় মোবাইলে চার্জ না থাকা, অল্পতেই মোবাইল গরম হয়ে যাওয়া ইত্যাদি সমস্যাগুলো দেখা দেয়।

মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম-গুলোর মধ্যে এই নিয়মটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন এবং এটি কখনোই অবহেলা করা উচিত না।

8. ব্যাটারীর চার্জ ২০ শতাংশের নিচে নামতে দিবেন না

বিষেশজ্ঞদের মতে মোবাইলের চার্জ ২০ থেকে ৮০ শতাংশ এর ভেতরে রাখা সবচেয়ে ভালো। তাই আমাদের মোবাইলগুলোতে এমন সিস্টেম করে দেওয়া থাকে যেন ২০% এর নিচে নেমে গেলে আমাদেরকে Warning দেওয়া হয়। চার্জ ওয়ার্নিং আসার সাথে সাথে আমাদেরকে মোবাইল চার্জে লাগাতে হবে। 

মোবাইলের চার্জ ২০% এর নিচে নেমে গেলে যেমন ব্যাটারীর জন্য ক্ষতিকর, তেমনি আমাদের সাস্থের জন্যও ক্ষতিকর। কারন, এসময় টাওয়ার থেকে মোবাইলে বেশি পরিমান রেডিয়েশন সিগন্যাল আসতে থাকে যা আমাদের শরীরের পরবর্তীতে বড় বড় রোগের সৃষ্টি করে।

9. মোবাইল ৮০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ করুন

এক গবেষনায় দেখা যায় একটি মোবাইল ২০% থেকে ৮০% পর্যন্ত চার্জ করলে মোবাইলের ব্যাটারি হেলথ ভালো থাকে এবং ব্যাটারি বেশিদিন পর্যন্ত টিকে থাকে। তাই, সবসময় ৮০% চার্জ হয়ে গেলে চার্জার থেকে মোবাইল খুজে ফেলার চেষ্ঠা করা উচিত। কখনোই ফুল চার্জ হয়ে যাওয়ার পরও মোবাইল চার্জে লাগিয়ে রাখা উচিত নয়। 

10. সারারাত মোবাইল চার্জ করবেন না

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছি রাতে মোবাইল চার্জে লাগিয়ে ঘুমিয়ে পরি এবং সকালে উঠে চার্জ থেকে প্লাগ-আউট করি। এটি করা কখনোই উচিত নয়। 

মোবাইল সম্পূর্ন চার্জ হয়ে যাওয়ার সাথে আপনাকে চার্জার থেকে ফোনটি খুলে ফেলতে হবে। সারারাত মোবাইল চার্জ করা কতটা ক্ষতিকর এই আর্টিকালটি পড়লে বুঝবেন।

11. Third Party apps কে না বলুন

আমরা অনেকেই মোবাইলের বিভিন্ন সুবিধা নিতে অনেক থার্ড পার্টি ব্যাটারী এপস চালিয়ে থাকি। এসকল এপস চালানো যেমন সুবিধা আছে তেমন অনেক অসুবিধাও আছে।

এসকল অ্যাপসগুল মোবাইলে ইন্সটল করা হলে সেটি ব্যাকগ্রাউন্ড-এ চালু থাকে। ফলে এপসগুলো মোবাইলের অনেকটা চার্জ খেয়ে ফেলে।

তাই, ব্যাটারী দীর্ঘদিন টেকাতে এসব এপস চালানো বন্ধ করতে হবে। আরো পড়ুনঃ মোবাইল ঠান্ডা রাখার সফটওয়্যার

পরিশেষে

আশা করি উক্ত নিয়ম আপনাদের মোবাইল চার্জ করলে মোবাইলের ব্যাটারী বেশিদিন ভালো থাকবে। তাছাড়া, উপরে উল্লিখিত ১১ টি নিয়ম যদি আপনি মোবাইল চার্জ করার ক্ষেত্রে মেনে চলতে পারেন তাহলে আপনার ব্যাটারির চার্জ বেশি থাকবে এবং মোবাইল অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়ার সমস্যা হবে না।

আজকের মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম নিয়ে আর্টিকেলটি আপনার কাছে কেমন লেগেছে? আপনার মতামত কমেন্ট করে জানিয়ে দিন। এবং আশা করি উল্লিখিত মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম মনে আপনার মোবাইল চার্জ করবেন।

Avatar of Shakib Hasan

Blogger and SEO Expert. Founder of Techbdtricks. I always try to explore something new and let the people know about that. Keep me in your prayers.

Leave a Comment