ইউটিউব মনিটাইজেশন কি? কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করব

ইউটিউব সারা বিশ্বে অনেক জনপ্রিয় একটি ভিডিও প্লাটফর্ম। মানুষ এখন কোনো কিছু জানতে হলে গুগলে সার্চ না করে সরাসরি ইউটিউবে সার্চ করে ভিডিও দেখতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। সে সুযোগ লুফে নিচ্ছে বিভিন্ন ইউটিউব ভিডিও কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা। তারা তাদের ইউটিউব মনিটাইজেশন করে প্রতি মাসে ইউটিউবে লাখ টাকার বেশি আয় করছে। আসলে এই ইউটিউব মনিটাইজেশন কি? কিভাবে কাজ করে?

কিভাবে মানুষ Youtube Monetization করার মাধ্যমে আয় করছে? কিভাবেই বা ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করা যায়? এসকল বিষয় নিয়েই আমাদের আজকের আর্টিকাল। মনযোগ দিয়ে পড়ুন, আশা করছি উপকৃত হবেন।

এক পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, শুধুমাত্র ২০২০ সালে অনলাইনে ১২ বিলিয়ন মিনিটেরও বেশি ভিডিও দেখা হয়েছে। এর বেশিভাগটাই হয়েছে ইউটিউবের মাধ্যমে।

তো বুজতেই পারছেন সারাবিশ্বে ইউটিউব কতটা জনপ্রিয় একটি ভিডিও প্লাটফর্ম।

আর ইউটিউব মনিটাইজেশন পাওয়াটাও অপেক্ষাকৃত সহজ। কেননা, ইউটিউবে ভিউস এবং সাবস্ক্রাইভার পেতে বেশিদিন সময় লাগে না।

মনযোগ সহকারে কাজ করে গেলে ৫-৬ মাসের মধ্যে আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন এর জন্য যোগ্য হয়ে যাবে।


বর্তমানে আমাদের দেশেও ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার ঘটনাটি খুব জনপ্রিয় হয়ে গেছে। বাংলাদেশের অনেক মানুষ ইউটিউবের জন্য ভিডিও তৈরি করে এবং সেখান থেকে মনিটাইজেশনের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করে।

তাছাড়া, বিশ্বের বহু সংখ্যক মানুষ অর্থাৎ কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা ইউটিউব চ্যানেল খুলে সেখানে ভিডিও কন্টেন্ট আপলোড করে প্রচুর অর্থ উপার্জন করছে। তাই চাইলে আপনিও ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে চ্যানেল মনিটাইজেশন করে এর থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

কিন্তু এর জন্য আপনাকে অবশ্যই ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে জানতে হবে। মনিটাইজেশনের সঠিক প্রক্রিয়া না জেনে কাজ করে গেলে ভবিষ্যৎতে আপনার Youtube Channel বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে।

যেন ভবিষ্যতে চ্যানেল নিয়ে কোনো সমস্যায় না পরতে হয় সে জন্য আজকের আর্টিকেলটি মন দিয়ে পড়ার অনুরোধ রইল।

তাই চলুন প্রথমে জেনে নেওয়া যাক, ইউটিউব মনিটাইজেশন কি।

ইউটিউব মনিটাইজেশন কি?

ইউটিউব হচ্ছে একটি জনপ্রিয় ভিডিও প্লাটফর্ম আর মনিটাইজেশন শব্দের অর্থ হচ্ছে নগদীকরন বা মুদ্রায়ন। ফলে, ইউটিউব মনিটাইজেশন এর মানে দাঁড়ায় ইউটিউব চ্যানেল কে মুদ্রায়ন করা বা ইউটিউব চ্যানেল কে আয় যুগ্য করে তোলা বা ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা ইত্যাদি।

অর্থাৎ, ইউটিউব মনিটাইজেশন হলো ইউটিউব ভিডিও থেকে অর্থ উপার্জন করার একটি প্রক্রিয়া। ইউটিউব  ভিডিওগুলো থেকে বিভিন্ন উপায়ে অর্থ উপার্জন করা যেতে পারে, যার মধ্যে সবচেয়ে সাধারণ হল বিজ্ঞাপন, স্পনসরশিপ এবং পণ্য বিক্রি।

বিজ্ঞাপন হল ইউটিউব ভিডিওর জন্য অর্থ উপার্জনের সবচেয়ে সাধারণ রূপ। YouTube বিজ্ঞাপনদাতাদেরকে  ভিডিও গুলোতে বিজ্ঞাপন দেওয়ার অনুমতি দেয় এবং তারপর ভিডিও নির্মাতাদের বিজ্ঞাপনের আয়ের একটি অংশ প্রদান করে। ইউটিউব মনিটাইজেশন হওয়ার পর অর্জিত টাকা গুগল এডসেন্স একাউন্টে জমা হয়। আপনার  ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করতে আবেদন করতে হয় এবং সাথে গুগল অ্যাডসেন্সে একাউন্ট তৈরি করতে হয়। যার সাথে আপনার ইউটিউব চ্যানেলটি কানেক্ট হয়ে যায়। এর ফলে ইউটিউব চ্যানেলের যত ইনকাম হয় ওই গুগল এডসেন্স একাউন্টে গিয়ে জমা হয়।

ইউটিউব মনিটাইজেশনের শর্তঃ

ইউটিউবে মনিটাইজেশন করতে হলে, আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয়তা বা শর্ত পূরণ করতে হবে এবং তারপর YouTube পার্টনার প্রোগ্রামে (YPP) যোগ দিতে হবে।

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করতে যে যে শর্তগুলো পূরন করতে হবেঃ

  • অবশ্যই আপনার  ইউটিউব চ্যানেলে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার থাকা লাগবে।
  • এক বছরের মধ্যে চ্যানেলে ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম অর্জন করতে হবে।
  • ইউটিউব কর্তপক্ষের কিছু পলিসি বা গাইডলাইন রয়েছে সেগুলো অবশ্যই মেনে কাজ করতে হবে।
  • চ্যানেলে কোন কপি করা ভিডিও আপলোড করা যাবে না, যে ভিডিও গুলো ইউটিউবে আগে থেকেই আপলোড করা হয়েছে।
  • ইউটিউব ভিডিও তে অন্য কারো ব্যবহার করা অডিও কিংবা Thumbnail ব্যবহার করা যাবে না।

এই শর্তগুলো মেনে কাজ করে গেলে খুব সহজেই আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজ হয়ে যাবে।

এখন চলুন জানা যা সে YouTube Partner Program-এ কিভাবে জয়েন করবেন।

YouTube পার্টনার প্রোগ্রামে কিভাবে যোগদান করবেন

আপনি YouTube-এর সমস্ত শর্ত পূরণ করার পরে, আপনাকে YPP-এ আবেদন করতে হবে। পদক্ষেপগুলো হলঃ

  1. প্রথমে YouTube স্টুডিওতে যান।
  2. বামপাশে নেভিগেশন বারে মনিটাইজেশন ক্লিক করুন ।
  3. আপনি যদি আবেদন করার যোগ্যতা করেন, তাহলে আপনি একটি নীল বোতাম দেখতে পাবেন৷ সেখানে ক্লিক করুন!
  4. YPP শর্তাবলী পর্যালোচনা করুন।
  5. একটি Google AdSense অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন এবং এটি আপনার চ্যানেলের সাথে সংযুক্ত করুন৷
  6. ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করুন. YouTube কর্তপক্ষ আপনার চ্যানেল পর্যালোচনা করে এবং আপনাকে একটি  ইমেল করবে।

ইউটিউবে কিভাবে বিভিন্ন উপায়ে মনিটাইজেশন করবেন?

ইউটিউব মানেই  হাজার হাজার ভিডিও সাথে বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপনের মেলা। তবে বিজ্ঞাপনই শুধু কনটেন্ট ক্রিয়েটারদের আয়ের একমাত্র নির্ভরযোগ্য উপায় নয়। বিজ্ঞাপনের হার উপরে এবং নিচে হয়। তাই ভিডিওতে  শুধু বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতি বছর একই পরিমাণ অর্থ উপার্জন করা কঠিন।

তাই ইউটিউব  CPM হার বুঝে অর্থ প্রদান করে । CPM (প্রতি মিলিয়ন খরচ) YouTube-এ প্রতি 1,000 ভিডিও ভিউয়ে বিজ্ঞাপনদাতারা যে পরিমাণ অর্থ প্রদান করে তা বোঝায়। আপনার চ্যানেলের ভিউ, দর্শক ইত্যাদির উপর নির্ভর করে রেটগুলি পরিবর্তিত হয়।

তবে চাইলে YouTube থেকে স্থিতিশীল আয় করতে পারবেন নিচের পদক্ষেপ গুলো অনুসরণ করেঃ

1. YouTube স্পনসরশিপ ডিল বা ব্র্যান্ড ডিল

YouTube ব্র্যান্ড ডিলের মাধ্যমে, আপনি আপনার ভিডিওগুলোতে একটি পণ্য বা পরিষেবা যুক্ত করে অর্থ উপার্জন করেতে পারবেন৷ আপনি চাইলে একাধিক ব্র্যান্ডের সাথে কাজ করতে পারবেন, যার ফলে আপনি আরও অর্থ উপার্জন  করতে পারবেন  এবং AdSense থেকে আয় উপার্জনের উপর  চাপও কমে যাবে।

একটি YouTube সমীক্ষায়, মাই ওয়ার্ক ফ্রম হোম মানি আবিষ্কার কেন যে, স্পনসর করা ভিডিও থেকে একজন ক্রিয়েটার $100 থেকে $4,000 উপার্জন করে থাকেন ৷ তাই স্পন্সর খোঁজার সময় চ্যানেলের আকার নিয়ে চিন্তা করবেন না। ছোট চ্যানেল, মাঝারি আকারের চ্যানেল এবং YouTube-এ আধিপত্য বিস্তারকারী মেগা প্রভাবশালীদের জন্য ব্র্যান্ড ডিল রয়েছে।

2. YouTube অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

আপনি জানেন কি, YouTube-এ পণ্যের বিজ্ঞাপনের লিঙ্ক দিয়ে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এটিকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বলা হয়। এটি  যেভাবে কাজ করে:

  1. বিভিন্ন ব্র্যান্ড/কোম্পানীর সাথে বিভিন্ন অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের জন্য সাইন আপ করুন।
  2. আপনার YouTube চ্যানেলের দর্শকদের জন্য কাস্টম শেয়ার লিংক তৈরি করতে পারবেন।
  3. চ্যানেলের দর্শকরা আপনার লিঙ্ক ব্যবহার করে যেকোন জিনিস কিনলেই আপনি তার একটি কমিশন পাবেন এবং আপনার এ্যাউন্টটে আয় যোগ হবে।

3. YouTube লাইভ স্ট্রীম

YouTube-এ যে নিয়মিত আমরা নিয়মিত ভিডিওগুলো দেখি  বিজ্ঞাপন সহ তেমনি আপনি লাইভ স্ট্রিম মনিটাইজেশন করতে পারবেন।

YouTube লাইভ স্ট্রিমগুলোতে  দর্শকরা ক্রিয়েটারদের সুপারচ্যাট প্রদান করে। সুপারচ্যাট এর মাধ্যমে আলাদাভাবেও অর্থ উপার্জন করা সম্ভব।

4. YouTube শর্টস ভিডিও

2021 সালের মে মাসে, YouTube শুধুমাত্র Shorts ক্রিয়েটরদের জন্য $100 মিলিয়ন ফান্ড চালু করেছে। এই অর্থ প্রতি মাসে 2021-2022 সালের মধ্যে YouTube Shorts ক্রিয়েটরদের মধ্যে বিতরণ করা হবে। এভাবে আপনি চাইলে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। YouTube Shorts ফান্ড পাওয়ার জন্য, আপনাকে YPP-এর অংশ হতে হবে না, তাই ক্রিয়েটারদের YPP প্রোগ্রামের প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে হয় না, এটি একটি বিশাল সুবিধা। তবে, YouTube Shorts বোনাসের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে হবে।

5. YouTube প্রিমিয়াম

YouTube প্রিমিয়াম হল একটি সাবস্ক্রিপশন পরিষেবা। যা YouTube কর্তৃপক্ষ  দ্বারা অফার করা হয়। সদস্যরা বিজ্ঞাপন-মুক্ত ভিডিও দেখতে , ভিডিও ডাউনলোড করতে, ব্যাকগ্রাউন্ড প্লেব্যাক করতে এবং আরও অনেক কিছু করতে পারে৷

ইউটিউবের তথ্য মতে, বিজ্ঞাপনের অর্থ প্রদানের মতোই প্রতি মাসের শুরুতে ক্রিয়েটরদের সপশন আয়ের অর্থ প্রদান করা হয়।  প্রিমিয়াম সদস্যরা আপনার ভিডিওগুলি কতটা দেখেন তার উপর নির্ভর করেই এর অর্থ প্রদান করা হয়।

আপনার ইউটিউব মনিটাইজেন কর্তৃপক্ষ গ্রহণ না করলে কি করবেন? 

আপনার আবেদন ইউটিউব প্রত্যাখ্যান করলে, কর্তৃপক্ষ আপনাকে ই-মেইল করে বলে দিবে যে, ইউটিউব মনিটাইজেশন করতে যে নীতিগুলি অনুসরণ করতে হয় সেটি আপনি সঠিকভাবে অনুসরণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। যদি এটি হয়, বিরক্ত হবেন না। আপনি 30 দিন পরে পুনরায় আবেদন করতে পারেন। দ্বিতীয়বার আবেদন করার আগে, আপনার চ্যানেলটিকে মনিটাইজেশন এর নীতিমালাগুলো আপডেট করুন। যাতে কর্তৃপক্ষ আবার আপনাকে প্রত্যাখান না করে।

উদাহরণস্বরূপ, আপনার YouTube চ্যানেলে যদি  নির্দিষ্ট কিছু ভিডিওর কারণে সমস্যা হয় সেগুলো আপনি ডিলিট করে দিবেন বা পুনরায় সংশোধন করে আপলোড দিবেন।

ইউটিউব মনিটাইজেন যেসব কারণে বন্ধ হয়ে যেতে পারে

  • পৃথিবীতে অসংখ্য ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে যেগুলোতে বিভিন্ন ধরণের রিমিক্স গানের কন্টেন্ট তৈরি করা হয়। এদের মধ্যে অনেক চ্যানেলেরই আবার লক্ষ লক্ষ লক্ষ সাবস্ক্রাইবার বা ভিউয়ার থাকে। কিন্তু এই চ্যানেলগুলো কখন মনিটাইজেশন পাবেনা। কারণ এখানে আপনার নিজস্ব কোনো সৃজনশীলতা কর্তৃপক্ষ দেখাতে পায় না। শুধুমাত্র অন্যদের গানগুলো কিছুটা পরিবর্তন করে কন্টেন্ট তৈরি করে।
  • ইউটিউব যে বিষয়ে সবচেয়ে কঠোর নিয়ম পালন করে তা হচ্ছে পর্নোগ্রাফি। অর্থাৎ আপনি আপনার ভিডিওতে এমন কোন কিছু প্রদর্শন করতে পারবেন না যা যৌনতা প্রদর্শন করে। আপনার যেসব ভিডিওতে এ ধরনের বিষয় থাকবে সে ভিডিওতে মনিটাইজেশন আসবেনা। তাছাড়া আপনার চ্যানেল  পর্নোগ্রাফির ফলে বন্ধ হয়ে যেতে পারে সাথে আপনার  ইউটিউব চ্যানেলের মনিটাইজেশন।
  • শিশুর ওপর নির্যাতন করা হয় এমন কোন কিছু আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের দেখালে সেখান থেকে মনিটাইজেশন পাবেন না। এটি ইউটিউব এর একটি নীতি হওয়ার জন্য আপনি এ ধরনের বিষয় দেখানো মাত্র ইউটিউব আপনার চ্যানেল থেকে বহিষ্কার করতে পারে।

আশা করি ইউটিউব মনিটাইজেশন কি? ইউটিউব মনিটাইজেশনের শর্ত  ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশনের মাধ্যমে কিভাবে টাকা আয় করা যায় এবং  ইউটিউব মনিটাইজেন যেসব কারণে বন্ধ হয়ে যেতে পারে ইত্যাদি  বিষয়ে এই আর্টিকেলটি পড়ে ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

Leave a Reply

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: