ylliX - Online Advertising Network5 টি ওপায়ে ইনকাম করুন অনলাইনে। অনলাইন ইনকাম। - Tech BD Tricks

5 টি ওপায়ে ইনকাম করুন অনলাইনে। অনলাইন ইনকাম।

5 টি ওপায়ে ইনকাম করুন অনলাইনে। অনলাইন ইনকাম।

অনলাইন ইনকাম বা অনলাইনে ইনকাম করার জন্য অনেক মাধ্যম রয়েছে। তার মধ্যে আমি আজকে আপনাদের সাথে 5 টি মাধ্যম বা ওপায় নিয়ে আলোচনা  করবো, যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা আপনাদের অনলাইন ক্যারিয়ার ডেভেলপ করতে পারবেন। তো, আপনি যদি অনলাইনের মাধ্যমে ইনকাম করে নিজের ক্যারিয়ার ডেভেলপ করতে চান তাহলে সম্পূর্ন পোষ্টটি মনোযোগ সহকারে পডতে থাকুন। আমি নিশ্চিত যে, আপনি এই 5 টি ওপায়কেই পছন্দ করবেন এবং এখান থেকেই যে কোনো একটাকে আপনার ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিতে চাইবেন। তবে প্রথম কথা বা কাজ হচ্ছে আপনাকে অনেক ধৈর‌্য ধারন করতে হবে। অনলাইনে সফল হওয়ার মূল মন্ত্রই হচ্ছে ধৈর‌্য।

 

তো চলুন শুরু করি অনলাইন ইনকাম করার সেরা 5 টি মাধ্যম বা ওপায় নিয়ে আলোচনা। প্রথমেই আমরা দেখে নেই কি কি থাকছে আজকের মূল বিষয়ে।

 

  • ব্লগিং করে ইনকাম
  • ব্লগার শিখে ইনকাম
  • ওয়ার্ডপ্রেস শিখে ইনকাম
  • ইউটিওব করে ইনকাম
  • এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম

 

ব্লগিং করে অনলাইন ইনকাম

 

আজকের আলোচনাতে প্রথমেই রয়েছে ব্লগিং করে ইনকাম। ব্লগিং হচ্ছে মূলত লেখালেখি করার পেশা বা প্রফেশন। আপনি বর্তমান সময়ে চাইলে ব্লগিং করার মাধ্যমে খুব সুন্দর ভাবে নিজের ইনকাম জেনারেট করে সুন্দর একটি ক্যারিয়ার ডেভেলপ করতে পারবেন। আপনি চাইলে আজ এখন থেকে ব্লগিং বা লেখালিখি করা শুরু করতে পারেন। আপনি চায়লে অন্যের ব্লগে লিখালিখি করার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারেন আবার নিজেও একটি ব্লগ বানিয়ে সেখানে লিখালিখি করার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। আপনি যদি গুগোরে সার্স করেন তাহলে এমন অনেক ওয়েবসাইট পাবেন যেখানে আপনি লিখালিখি করার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। আর আপনি যদি চান নিজেই ব্লগিং করবেন তাহলে আপনাকে ডোমেইন হোস্টং কিনে নিয়ে সুন্দর দেখে একেটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ বানাতে হবে। এটা আপনি অন্যকাওকে দিয়েও করাতে পারবেণ আবার ইউটিওব দেখে দেখে বা আর্টিকেল পডে নিজেও একটি সাইট বানাতে পারবেন। তারপর শুরু করে দিবেন আপনার লেখালেখি করা। যেটার সাথে আপনাকে এসইও টা শিখে নিতে হবে। আপনার ওয়েবসাইট রেংক করলে আপনি এখান থেকেই মাসে কমপক্ষে 20-25 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাহলে আর দেরি না করে শুরু করে দিন এখনি।

 

অবস্যই পডুনঃ

 

ব্লগার শিখে অনলাইন ইনকাম

 

ব্লগার হচ্ছে গুগোলের একটি ফ্রি ওয়োবসাইট বা প্লাটফর্ম। এটি একটি ওয়েবসাইট বিল্ডার। আপনি এই প্লাটফর্ম কে ব্যাবহার করে ফ্রিতে অনেক সুন্দর সুন্দর ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন। বর্তমানে বিভিন্য ফ্রিলান্সিং প্লাটফর্মে এই ব্লগারের ওপর অনেক কাজ পাওয়া যায়। আপনি এই ব্লগার প্লাটফর্মটা ভালো ভাবে শিখতে পারেন তাহলে আপনি এইসকল কাজ করেও ফ্রিলান্সিং করতে পারবন। আর ফ্রিলান্সিং করার মাধ্যমে অনেক ভালো পরিমান টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে এই কাজে আপনাকে আগে ভালো করে ব্লগার সম্পর্কে ধারনা অর্জন করতে হবে। আপনাকে অনেক দক্ষ হতে হবে এই ব্লগার প্লাটফর্মে। নিজেকে সবসময় আপডেট রাখতে হবে। অনেক কাজ করতে হবে। তাহলেই আপনি নিঃশন্দেহে সফল হতে পারবেন এখানে।

অবস্যই পডুনঃ

 

ওয়ার্ডপ্রেস শিখে অনলাইন ইনকাম

 

ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে একটি সফটওয়ার। যার মাধ্যমে খুব সহজে ওয়েবসাইট বানানো যায়। আপনি এই ওয়ার্ডাপ্রেসকে ব্যাবহার করে খুব সহজে প্রায় সকল প্রকার ওয়েবসাইট বিল্ড করতে বা বানাতে পারবেন খুব সহজে । এটিও একটি ফ্রি প্লাটফর্ম। তবে আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে চান তাহলে আপনাকে ডোমেইনের সাথে হোস্টিং ও কিনতে হবে। নাহলে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাবহার করতে পারবেন না। আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস ভালো করে শিখতে পারেন তাহলে আপনাকে পেছনে ঘুরে তাকাতে হবে না। আপনি খুব দ্রুতই সফল হয়ে যাবেন আপনার এই ওযার্ডপ্রেস ক্যারিয়ারে। তবে কাজ শিখতে আপনার একটু বেশি সময় লাগবে। কমপক্ষে তো 4-6 মাস সময় লাগবেই। কিন্তু কাজ শেখা শেষ হলে আপনারা অতি তারাতারি এই সেক্টরে সফল হবেন। আপ তখন আপনাদের মাসিক ইনকাম থাকবে 50-60 হাজার টাকা বা তারো বেশি।

 

অবস্যই পডুনঃ

 

ইউটিওব করে অনলাইন ইনকাম

 

ইউটিওব করে ইনকাম। ইউটিউব হচ্ছে মূলত ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট। আপনি এখানে আপনার জানা যে কোনো স্কিলকে ভিডিও আকারে বানিয়ে শেয়ার করবেন। এখানে আপনি একজন শিক্ষক হিসেবে কাজ করবেন এবই আপনার স্টুডেন্টদেরকে শেখাবেন। আপনার ইউটিওব চ্যানেলে যখন মনিটাইজেশনের জন্য কুয়ালিফাই হবেন তখন আপনাকে গুগোল এডসেন্স এর জন্য আবেদন করতে হবে। তারপর আপনার চ্যানেলের সকল কিছু ঠিক থাকলে 15-30 দিনের মধ্যে মনিটাইজেশন চালু হয়ে যবে এবং সেখান থেকে আপনি অনেক ভালো পরিমানের একটা এমাউন্ট ইনকাম করতে পারবেন। যা প্রায় 15-20 হাজার টাকার উপরে প্রতি মাসে। ধিরে ধিরে আপনার ইনকাম আরো বাডতে থাকবে। আপনার ইউটিওব চ্যানেল যত জনপ্রিয় হবে আপনার ইনকাম ও তেমন ভবেই বাডতে থাকবে।

 

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইন ইনকাম

 

এফিলিয়েট মার্কেটিং। এটি হচ্ছে মূলত অন্যের কোনো প্রডাক্ট আপনি বেচে দিবেন এবং সেটার জন্য আপনি মূলত একটি কমিশন পাবেন। আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য বিভিন্য প্লাটফর্ম ব্যাবহার করতে পারবেন। যেমনঃ ব্লগ, ইউটিওব, ফেসবুক ইত্যদি। অরথাৎ আপনি আপনার এফিলিয়েট লিংকে অন্যের কাছে প্রমোট করতে থাকবেন। যখন কেও আপনার দোওয়া লিংকে ক্লিক করে সেই প্রডাক্টটি কিনবে তখনি মূলত আপনি একটি কমিসন পাবেন। আর যেটা অন্য ওপায় গুলোর মধ্যে থেকে সবথেকে সহজ এবং বেশি লাভজনক। আপনি এই কাজ করা জন্য আমাজন এফিলিয়েট প্রগ্রাম বা আলিএক্সপ্রেস এ এফিলিয়েট প্রগ্রামে যুক্ত হতে পারেন। এই দুটো কম্পানি এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য বেষ্ট বলে আমি মনে করি। তারা আপনাকে অনেক বেশি পরিমাসে কমিসন দিয়ে থাকবে। যার ফলে আপনার ইনকাম অনেক ভালো হবে।

 

তো আজকের আলোচনার বিষয়গুলো শেষ হলো । এগুলো সবগুলোই অনেক ভালো মাধ্যম আনলাইন তেকে ইনকাম করার। তবে এর মধ্যে থেকে সবথেকে জনপ্রিয় হচ্ছে ব্লগিং এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং। এই দুটি মাধ্যমে আপনারা অকে কম পরিশ্রমে এবং সহজে ভালো এমাউন্ট ইনকাম করে নিতে টারবেন অনেক সহজজে। তাই আর দেরি না করে এখন থেকেই শুরু করুন আপনার সফল হওয়ার কাজ।

 

আরো পডুনঃ

Tech BD Tricks Administrator
Sorry! The Author has not filled his profile.

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link