ওয়ার্ডপ্রেসব্লগিং

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাসিক সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন ও শিখুন সহজেই

হ্যালো বন্ধুরা।  আজ আমরা জানবো ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাসিক সম্পর্কে। তো, কেমন আছেন? আশা করি মহান আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন। আলহামদুলিল্লাহ আমিও ভালো আছি। আমি আজকে আপনাদেরকে ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবো। এটির কাজ কি, কিভাবে কাজ করে সুবিধা ইত্যাদি সকল বিষয়। তাই দেরি না করে চলুন শুরু করি।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাসিক


আমাদের জীবনে একবার হলেও যারা ওয়েব ডিজাইন বা ডেভেলপমেন্ট সাথে জডিত হয়েছেন বা এই বিষয়ে ঘাটাঘাটি করেছেন তারা কোনো না কোনো সময়ে ওয়ার্ডপ্রেস এর নাম শুনে থাকবেন। ওয়ার্ডপ্রেস কি? এটা কিভাবে কাজ করে? এবং কেন দরকার? এই জিনিস যে বেসিক জিনিস গুলো আছে সেগুলো নিয়ে আমি আলোচনা করবো। ওয়ার্ডপ্রেস কি সেটা হয়ত বলবেন যে সবাই জানে। কিন্তু না। এখনো অনেক মানুষ আছে যারা ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে জানে না। কারণ আমি অনলাইনে অনেক পোষ্ট বা ভিডিও দেখেছি যেখানে থিম ইনসটল করা হয়েছে প্লাগিন ইনসটল করা হয়েছে কিভাবে কাজ করতে হয় কিভাবে কি তৈরি করতে হয় সেগুলো যেনেছেন। কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেসটা আসলে কি? কেন দরকার যেগুলো অনেকে জানেন ই না। আজকে আমি এবং আপনি আমরা সবাই মিলে ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো বা জানার চেষ্টা করবো।

এর জন্য দরকার কিছু টুলস কিংবা যন্ত্র পাতি। যেগুলো ব্যাবহার করে আমরা সব কিছু জানবো। তবে তার জন্য বা সেগুলো বানানোর জন্য আমরা একটু পেছনে যাব মানে ওয়েবসাইট কিভাবে কাজ করে এই জিনিসটাকে জেনে নিতে হবে। তাহলে আমাদের জন্য ওয়ার্ডপ্রেস কে জানতে অনেক সুবিধা হবে। এটা বোঝার জন্যা আমাদেরকে ডোমেইন এবং হোস্টিং এর সম্বন্ধে জানতপ হবে। ডোমেইন হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটের নাম। যেমনঃ ডট কম, ডট নেট, ইত্যাদি এবং হোস্টিং হচ্ছে যেখানে আপনার ওয়েবসাইটটির সকল ডাটা যেখানে থাকে। আপনার সামনে কোন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করি তখন আমরা বিভিন্য ব্রাউজারে ব্যাবহার করি। যেমনঃ গুগল ক্রোম, ফায়ারফক্স তারপরে অপেরা microsoft-এর ইলস।

 

আসলে এর আমাদের কোনো ভাষা বুঝে না। এরা হচ্ছে এলিয়েন। তারা বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, কোনটাই বোঝেনা। অন্য গ্রহ থেকে এসেছে তো তারা(হাহা মজা করলাম)। তারা যে ভাষা গুলো বুঝে সেগুলো হচ্ছে পিএইচপি, সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্ট, এইচটিএমএল, ইত্যাদি এরকম আরো বেশ কিছু ভাষা রয়েছে। এই কোডগুলো শুধুমাত্র ওয়েব ব্রাউজারেরয়ই বোঝে আর কেও বোঝে না এবং কিছু মানুষ আছে যারা বোঝে। যারা এই কোড গুলো লিখে তারা শুধুমাত্র বোঝে। কিন্তু আমাদের সকলেরই তো ওয়েবসাইট দরকাট। কিন্তু কিভাবে বানাবো? ওয়েবসাইট বানানোর জন্য তো কোড লেখার প্রয়োজন পডে। এই কোডগুলো লিখে দেওয়ার জন্য তো এক্সপার্ট দরকার তাই না? সবাই তো এই কোড গুলো লিখতে পারে না।(ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাসিক)

 

ওয়েবসাইট অনেকেরই দরকার যেহেতু, কিন্তু আমি আপনি আমরা তো কোড লেখতে জানিনা। তাহলে যদি আমাদের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয় তাহলে আমরা কোন ডেভলপারের কাছে ভালো কোডিং করতে পারে তার কাছে গিয়ে আমরা টাকা দেই। আর তারা আমাদের ওয়েবসাইটটিকে বানিয়ে দেয়।সেই জিনিসটা অনেক ক্লান্ত হয়ে যায় কারণ কোড লিখতে বা কোডিং করে একটা ওয়েবসাইট বানাতে এত এত কোড লিখতে হয় যা বলে হয়তবা বোঝানো যাবে না। আপনি যদি google.com এ যান। সিম্পল একটা পেইজ। এর ব্যাকগ্রাউন্ডে দেখবেন ইনস্পেক্ট এলেমেন্ট ক্লিক করে ব্রাউজার রাইট বাটনে ক্লিক করে তাহলে দেখতে পারবেন সামান্য একটা পেজ তৈরি করতপ কত্ত কত্ত কোড লিখতে হয়েছে।

 

একজন সাধারন ডপভেলপার যদি এরকম একটি ওয়েবসাইর বানাতে চায় তাহলে তার জন্য একটা কমপ্লিট করতে বছরের পর বছর সময় লেগে যেতে পারে। জিনিসটাকে ইজিলি কিভাবে করা যায় এই কাজটাই ওয়ার্ডপ্রেস করছে। এখানপ ওয়ার্ডপ্রেস কাজ করছে একটা ট্রান্সলেটর হিসেবে।অনেক সময় দেখবেন চাইনিজরা আর যখন কোন বিজনেস দিল করে ফরেন ডেলিগেটদের সাথে, সেখানে যখন কথা বলে তখন তারা তো ইংরেজি বোঝে না। তাই মাঝখানে একজন ইংরেজি ইংলিশ ম্যান আছে সে তাকপ বুঝিয়ে দেয় ইংরেজিতে। ঠিক একি কাজটি করছে ওয়ার্ডপ্রেস। এখানে আপনি আপনার মত করে লিখবপন হবে বা আপনি আপনার ভাষায় ওয়ার্ডপ্রেসকে বলবেন ওয়াডপ্রেস নিজে থেকেই জিনিসটাকে যেভাবে ব্রাউজার বুঝবে সেই কোড এ কনভার্ট করে নেবে।

 

এটাই হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস। এর কাজ হচ্ছে মূলত একধরনের ট্রান্সলেটর সফটওয়্যার যেটা ট্রান্সলেটরের মত কাজ করে আমাদের ভাষাকে ব্রাউজারের ভাষায় কনভার্ট করে দেয়। আমি আপনাদেরকে আরো একটু সহজ করে বুঝাচ্ছি। মনে করেন আপনি পড়া সম্পর্কে একটা পেজ তৈরি করবেন। যেটার নাম হবে গ্যালারি। এটা করার জন্য আপনাকে আবার এইচটিএমএল পিএইচপি বা সিএসএস দিয়ে আপনাকে বিভিন্ন জায়গায় ডিজাইন করে করে সেটাকে ইন্ডিকেট করে করতে হবে। যেটা অনেক ঝামেলার বিষয় ভাই। আমি আর এসব কঠিন দিকে যাচ্ছিনা। তো এই একই কাজটি যদি আপনি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে করতে চান তাহলে আপনি ওয়ার্ডপ্রেসে পেইজ নামে একটি অপসন পাবেন। সেখানে এড নিউ পেইজে ক্লিক করবেন। তাহলে সেই পেজের মধ্যে একটা বক্স আসবে। সেখানে আপনি উপরে দেখতে পাবেন লিখা আছে অ্যাডমিডিয়া। সেখানে ক্লিক করবেন। তারপর ব্রাউজ করে আপনার কম্পিউটার থেকে একটি ছবিটি আপলোড করে দিবেন।


ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে একটি সফটওয়্যার। যেটা আপনি আপনার ওয়েবসাইটের কিভাবে ইনসটল করতে হবে। কিভাবে করতে হয়? আপনি যে আপনার হোস্টিং আছে সেখানে ওয়ার্ডপ্রেসের ফাইলগুলো রেখে দেবেন। তারপর সেটার সাথে আপনার ডেটাবেজ কানেক্ট করে দিবেন। এর পরে আপনি জাস্ট ওয়ার্ডপ্রেসের লগিন করে আপনার কাজগুলো করবেন। আপনার ওয়েবসাইটটা কোন ধরনের কোডিং লাগবে না। সম্পূর্ন ওয়েবসাইটটি এমনি এমনি তৈরি হয়ে যাবে।


এখন বলতে পারেন ওয়ার্ডপ্রেস কি একমাত্র সফ্টিয়ার? অবস্যই না। এই কাজগুলো করার জন্য অনেক সপটওয়ার বা ট্রান্সলেটর আছে। তবে এগুলোর মধ্যে নাম্বার অফ দা মোস্ট পপুলার হচ্ছে ওয়াডপ্রেস। এর পরে হচ্ছে ব্লগার।


এরকম একটা প্লাটফর্ম তৈরি করার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস, ব্লগার, ইউনিভার্সাল, ইত্যাদি আরো সফটওয়ার এর মাধ্যমে তৈরি করা যায়।


এটাকে আরো সহজ ভাবে বলতে গেলে হবে। আপনি ভিডিও এডিটিং করতে পারেন তাহলে ভিডিও এডিটিং এর জন্য তো আপনারা জানেন অনেক সফটওয়্যার আছে। এডোবি প্রিমিয়ার, প্রো এডিটিং সফটওয়্যার, ইত্যাদি। যেগুলো আপনারা ব্যাবহার করে আপনার ভিডিওগুলো ইডিট করে থাকেম। ঠিক একই ভাবে যে ওয়েবসাইট গুলো আছে এগুলোর ভেতরে বিভিন্ন ধরনের থিম থাকে পৃলাগিন থাকে। এর মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ডিজাইনের ওয়েবসাইট বানিয়ে ফেলতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাসিক সারাংসঃ

 

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাসিক পোষ্ট আমরা যেটা বিস্তারিত ভাযে আলোচনা করলাম এবং শিখলাম। ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে একটি ওয়েবসাইট বিল্ডার সফটওয়ার। এটিকে ব্যাবহার করে খুব সহজেই একটি ওয়েবসাইট বানানো যায়। এটার জন্য কোনো প্রকার কোনো কোডিং জানার প্রয়োজন নেই। এটি মুরত ট্রান্সলেটের মতো কাজ করে মাগুষের ভাষাকে ব্রাউজারের ভাষায় পরিনত করে। তাই এটি একাটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বিল্ডর।

 

আরো জানুনঃ

 

 

আশা করি আপনি এখন ওয়ার্ডপ্রেসের ব্যাসিক সম্পর্কে জানতে পেরে গেছেন। তার পরেও কোনো সমস্যা থাকলে অবস্যই কমেন্টে জানাবেন। আমি সেটার সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করবো।


আজ এখানেি শেষ করছি। আপনি আমার অন্য পোষ্টগুলো পডে আরো জ্ঞান অর্জন করতে থাকুন।ধন্যবাদ।

Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close